চিড়িয়াখানায় দর্শক টানতে পশুদের উপর অমানবিক অত্যাচার চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষের। প্যালেস্টাইনের গাজা স্ট্রিপের দক্ষিণে রাফা চিড়িয়াখানার বাসিন্দা, ফ্যালেস্টাইন নামে ১৪ মাসের এক সিংহীর নখ উপড়ে ফেলেছে তারা। চিড়িয়াখানার মালিক মহম্মদ জুমার সাফাই, সিংহীর আগ্রাসী মনোভাব কমিয়ে তাকে দর্শকদের সামনে বের করতে চাইছেন তাঁরা। তাহলে যেমন চিড়িয়াখানায় দর্শকদের আনাগোণা বাড়বে, তেমনই মানুষের সঙ্গে মিশে আরও বন্ধুত্বপরায়ণ হয়ে উঠবে ফ্যালেস্টাইন।

তবে নখ উপড়ে নিলেও দাঁত আছে তার। গাজায় কোনও পশু হাসপাতাল না থাকায় পশুচিকিৎসক ফায়াজ আল–হাদ্দাদ চিড়িয়াখানার ভিতরেই ওই অস্ত্রোপচার করেন। চিকিৎসকের দাবি, মাত্র ছয় মাসেই ফের নখ গজিয়ে যাবে পশুটির। তার চরিত্রগত বৈশিষ্ট্যও এতে বদলাবে না। যদিও এই ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ করেছে ক্ষুব্ধ পশুপ্রেমী সংগঠন এবং স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনগুলি। তাদের অভিযোগ, এটা পশুদের উপর নিষ্ঠুরতা। সিংহীর যে কোনও সময় চোট লাগতে পারত। ওই চিড়িয়াখানায় অস্ত্রোপচারের উপযুক্ত ব্যবস্থাও নেই। জীবনভর গভীর ক্ষত হয়ে যেতে পারে থাবাগুলিতে।

অস্ত্রোপচারের পর প্রথমবার স্থানীয় সময় গত মঙ্গলবার, মূল খাঁচার বাইরে খালি জায়গায় আনা হয় ফ্যালেস্টাইনকে। তবে শুরুতেই দর্শকদের সামনে বের করার ঝুঁকি না নিয়ে প্রথমে চিড়িয়াখানার কর্মীদের সঙ্গেই খেলা করার ব্যবস্থা করে কর্তৃপক্ষ। তখনই দেখা যায় ক্লান্ত, অবসন্ন ফ্যালেস্টাইন তার নখহীন থাবা গাছের কান্ডে আঁচড়াচ্ছে।

Related Post

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •