পরকীয়া একটি বিষাক্ত সম্পর্ক। একটি সুন্দর হাসিখুশি সুখের সংসার নিমিষেই গুঁড়িয়ে দেওয়ার ক্ষমতা রাখে এই পরকীয়ার সম্পর্ক। কেউ নিজের ইচ্ছায় এই বিষাক্ত সম্পর্কের পথে পা বাড়ান আবার কেউ মনের অজান্তেই জড়িয়ে পড়েন। মনের মত স্বামী/স্ত্রী না পেলে অনেকে স্বেচ্ছায় পরকীয়া করেন। এমনই একটি ঘটনা ঘটল পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতে। নিজের পুত্রবধূর সঙ্গে পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়েন ৬২ বছর বয়সী ছোটা সিং নামের এক ব্যক্তি।

এর পরের ঘটনা আরো ভয়াবহ। নিজের ছেলে রাজবীন্দ্র সিংকে (৪০) নিজ হাতে খুন করেছেন। এই অভিযোগে পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করেছে। মঙ্গলবার (১২ ফেব্রুয়ারি) রাতে ভারতের পাঞ্জাবে এ ঘটনা ঘটেছে। এই ঘটনায় অভিযুক্ত বাবাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। পুলিশ বলছে, মঙ্গলবার রাতে নিজের ঘরে ঘুমিয়েছিলেন রাজবীন্দ্র সিং। সে সময় ধারালো অস্ত্র দিয়ে গলা কেটে তাকে খুন করেন ছোটা সিং। এরপর লাশ টুকরো টুকরো করে প্লাস্টিকের ব্যাগে ভরে নর্দমায় ফেলে দেন।

পুলিশ জানায়, ছোটা সিং মরদেহ নর্দমায় ফেলতে গেলে ঘুম ভেঙে যায় ভাতিজা চুরচারণ সিংয়ের। ঘরে ছড়ানো-ছিটানো রক্ত দেখে সন্দেহ হয় তার। এরপর চাচাকে জেরা করতেই আসল সত্য বেরিয়ে আসে। এরপর ছোটা সিংকে পুলিশে সোপর্দ করা হয়। নিহতের ছোট ভাই রাজভির সিং জানান, পুত্রবধূ জাসভিরের সঙ্গে প্রেমে জড়িয়ে পড়েন তার বাবা ছোটা সিং। এ নিয়ে প্রায়ই বাবা ও ছেলের মধ্যে ঝগড়া হতো।

Related Post

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •