কাশ্মীরের পুলওয়ামায় বিচ্ছিন্নতাবাদী হামলার পর ফুঁসছে পুরো ভারত। এ হামলার জন্য দায়ী করা হচ্ছে পাকিস্তানকে। পাক ক্রিকেটের উপরে ইতোমধ্যে খড়গ নেমে এসেছে। এবার বলিউডে পাকিস্তানি গায়কদের বয়কটের করার আহবান জানাল হিন্দুবাদী সংগঠন।

বৃহস্পতিবার দেশটির আধা সামরিক বাহিনীর কনভয়ে আধা সামরিক বাহিনীর সিআরপিএফ কনভয়ে আত্মঘাতী হামলায় নিহত হন ৪৪ জন সেনা।
ঘটনার পরপর কাশ্মীরের স্বাধীনতাকামী সংগঠন জইশ-ই-মুহাম্মদ এ হামলার দায় স্বীকার করেছে। ভারতের দাবি, পাকিস্তানে বসেই এ হামলার পরিকল্পনা হয়েছে। এর পেছনে রয়েছে পাক সেনাবাহিনীর ইন্ধন।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এবেলা জানায়, এ ঘটনায় ক্ষুব্ধ হয়ে ভারতীয় মিউজিক কোম্পানিগুলিকে পাক-সঙ্গীত শিল্পীদের সঙ্গে কাজ করা থেকে বিরত থাকতে বলেছে মহারাষ্ট্রের প্রভাবশালী রাজনৈতিক দল মহারাষ্ট্র নবনির্মাণ সেনা।

সংগঠনটির শীর্ষ নেতা আময়ে খোপকর বলেন, টি-সিরিজ, সোনি মিউজিক, ভেনাস, টিপস মিউজিক ইত্যাদি সংস্থাকে তারা পাক শিল্পীদের সঙ্গে কাজ করতে বারণ করেছেন।
এদিকে জানা গেছে টি-সিরিজ তাদের ইউটিউব চ্যানেল থেকে আতিফ আসলাম ও রাহাত ফতেহ আলি খানের গান রিমুভ করেছে। যদিও অন্য ইউটিউব চ্যানেলে তাদের গান পাওয়া যাচ্ছে।

এর আগে ২০১৬ সালে উরি হামলার সময়ে রাজ ঠাকরের নেতৃত্বাধীন মহারাষ্ট্র নবনির্মাণ সেনা ভারতে কর্মরত পাকিস্তানি শিল্পীদের দেশ ছেড়ে চলে যাওয়ার জন্য ৪৮ ঘণ্টা সময় বেধে দিয়েছিল
ইতোমধ্যে পাকিস্তান সুপার লিগের (পিএসএল) সম্প্রচার বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে ভারতে। এমনকি দেশটির সংবাদমাধ্যমগুলো পিএসএলের খবর ও কোনো রকম তথ্য প্রকাশও বন্ধ করে দিয়েছে।

একইভাবে মুম্বাইয়ের শীর্ষ একটি ক্রিকেট ক্লাব থেকে সরিয়ে ফেলা হয়েছে পাকিস্তান ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক ও দেশটির বর্তমান প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের প্রতিকৃতি।

Related Post

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •