পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেছেন, পাকিস্তানের হাত থাকার কথা না ভেবে নিজেদের ত্রুটি নিয়ে মাথা ঘামাক ভারত। কাশ্মীরের পুলওয়ামায় ভারতীয় সেনাবহরে আত্মঘাতী হামলায় পাকিস্তানের উপর দায় চাপানোর দু’দিন পর রবিবার কড়া জবাব দিল পাকিস্তান।

বিষয়টি নিয়ে পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মুহম্মদ ফয়সাল বলেছেন, কোনো তদন্ত ছাড়াই হামলার পরই বলে দেওয়া হল জইশ-ই-মুহম্মদ ও পাকিস্তান জড়িত। অতীতে এমন ঘটনা হয়েছে। ভারতের এই চাল বহু পুরনো।

তিনি বলেন, ভারতের উচিত এই ঘটনার পেছনে তাদের নিরাপত্তা ব্যবস্থায় কোনো গাফিলতি কিংবা গোয়েন্দা তথ্যে কোনো ঘাটতি রয়েছে কিনা। ভারত আত্মঘাতী জঙ্গি আদিল দারের ভিডিওকে সত্য বলে দাবি করেছে। অন্যদিকে কুলভূষণ যাদবের স্বীকারোক্তিকে মিথ্যা বলছে।

বিষয়টি নিয়ে শুক্রবার পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মুহম্মদ কুরেশি বলেন, পুলওয়ামা হামলার জন্য কোনো দেশকে কাঠগড়ায় দাঁড় করানো যায় না। তবে, ভারতে ওই ঘটনায় পাকিস্তানের জড়িত থাকার কোনো সাক্ষ্য দিলে তদন্তে পূর্ণ সহযোগিতা করা হবে। কোনো প্রমাণ ছাড়াই ভারত পাকিস্তানের দিকে আঙুল তুলছে।

এ বিষয়ে পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, পাকিস্তানের ওপরে দোষ চাপিয়ে দেওয়া খুব সহজ। এভাবে সমস্যার সমাধান হবে না। বিশ্বে কেউ তা বিশ্বাস করবে না। আমরা জানি নিজেদের কীভাবে বাঁচাতে হয়।

গত বৃহস্পতিবার পুলওয়ামার সিআরপিএফের কনভয়ে আত্মঘাতী হামলার পরই ভারতের দিক থেকে দাবি করা হয়, জইশ-ই-মুহম্মদ ও পাকিস্তান এ হামলার সঙ্গে জড়িত।

Related Post