ভারতের বেঙ্গালুরুতে মাঝ আকাশে দুই জেট বিমানের মধ্যে মুখোমুখি সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। বেঙ্গালুরুতে অ্যারো ইন্ডিয়া শো শুরুর আগের দিন বিমানবাহিনীর সূর্য কিরণ অ্যারোবেটিক্স টিমের দুই বিমানের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। মঙ্গলবার সকালে বেঙ্গালুরুর উত্তরের ইয়ালেহাঙ্কায় ঘটনাটি ঘটেছে। প্রাথমিক রিপোর্টে জানা গিয়েছে দুটি বিমানের পাইলট সুস্থ আছেন। বিমানবাহিনীর বিশেষ প্রদর্শনী ‘এ্যারো ইন্ডিয়া’র রিহার্সাল চলছিল। সেখানেই উড়ছিল সূর্য কিরণ অ্যরোব্যাটিক্স টিমের দুই বিমান। মাঝ আকাশে মুখোমুখি চলে আসে বিমান দুটি। সংঘর্ষে এয়ারবেসে ভেঙে পড়ে সেই দুই বিমান। সূত্র : এনডিটিভি

####পাকিস্তানের নাগরীকদের ৪৮ ঘন্টার মধ্যে রাজস্থান ছাড়তে হবে: রাজস্থানের স্থানীয় প্রশাসন এক নির্দেশে বলছে,আগামী ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে পাকিস্তানি নাগরিকদের রাজস্থান ছাড়তে হবে। গত সোমবার(১৮ ফেব্রুয়ারি ভারতের উত্তরাঞ্চলীয় এই প্রদেশের বিকানার জেলা ম্যাজিস্ট্রেট এই নির্দেশনা জারি করেন। গত বৃহস্পতিবার জম্মু-কাশ্মীরের পুলওয়ামা জেলায় জঙ্গি হামলায় দেশটির কেন্দ্রীয় আধা সামরিক বাহিনীর (সিআরপিএফ) ৪০ সদস্যের প্রাণহানির পর সোমবার ফৌজদারি কার্যবিধির (সিআরপিসি) ১৪৪ ধারা অনুযায়ী বেশ কিছু নির্দেশ জারি করে বিকানার জেলা প্রশাসন। প্রশাসনের এই আদেশ তাৎক্ষণিকভাবে কার্যকর করা হয়েছে। জেলার হোটেল, লজে পাকিস্তানি নাগরিকদের ভাড়া দেয়া ও অবস্থান নিষিদ্ধ করা হয়েছে। এছাড়া পাকিস্তানিদের কোনো কাজ কিংবা চাকরিতে নিয়োগ না দেয়া এবং রাজস্থান সীমান্তের কাছের এই জেলার নাগরিকদের পাকিস্তানের সঙ্গে কোনো ধরনের ব্যবসায়িক সম্পর্ক না রাখারও আহ্বান জানানো হয়েছে।

### কাশ্মীরে কেউ অস্ত্র তুলে নিলে তাকে মুছে ফেলা হবে: ভারতীয় সেনা ভারতীয় সেনাবাহিনীর বলেছে, কাশ্মীরে কেউ হাতে অস্ত্র তুলে নিলে তাকে মুছে ফেলা হবে, যদি না আত্মসমর্পণ করেন। কাশ্মীরের মায়েদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে সেনাবাহিনী বলেছে, তাদের মধ্যে যাদের সন্তান হাতে অস্ত্র তুলে নিয়েছেন, তাদের যেন বুঝিয়ে মূলস্রোতে ফিরিয়ে নিয়ে আসেন। বৃহস্পতিবার ভারতনিয়ন্ত্রীত কাশ্মীরে আত্মঘাতি বোমা হামলার একটি আধাসামরিক বাহিনীর ৪৪ জওয়ান নিহত হওয়ার পর এ হুশিয়ারি দেয়া হয়েছে। পাকিস্তানভিত্তিক জইশ-ই-মোহাম্মদ ইতিমধ্যে হামলার দায় স্বীকার করেছে।

কাশ্মীর উপত্যকা থেকে জইশ-ই-মোহাম্মদের পুরো নেতৃত্বকে শেষ করে দেয়া হয়েছে বলেও জানায় ভারতীয় সেনাবাহিনী। চিন্নার কোরপসের কমান্ডার লেফটেন্যান্ট জেনারেল ক্যানওয়াল জিত সিং বলেন, কাশ্মীরের সব মায়েদের প্রতি আমার অনুরোধ, সন্ত্রাসবাদে যোগ দেয়া আপনার সন্তানকে আত্মসমর্পণের অনুরোধ করুন। তাদের মূলস্রোতে ফিরে আসতে বলুন। কাশ্মীরে যদি কেউ অস্ত্র তুলে নেয়, তাকে মুছে ফেলা হবে, যদি না আত্মসমর্পণ করেন।
আধাসামরিক বাহিনী সিআরপিএফ এবং জম্মু ও কাশ্মীরের পুলিশের এক যৌথ সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন। এ সেনা কর্মকর্তা বলেন, সরকারের আত্মসমর্পণ নীতির কারণে তরুণরা মূলধারায় ফিরে আসতে পারবেন। কিন্তু এর বাইরে কেউ অস্ত্র তুলে নিলে তাকে শেষ করে দেয়া হবে। পুলওয়ামায় হামলা পরের ১০০ ঘণ্টায় অন্তত তিন বিদ্রোহীকে হত্যা করা হয়েছে বলে দাবি করে দেশটির সেনাবাহিনী।

Related Post

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •