ফিরে গেলেন প্রিন্স সালমান – ভারতে না গিয়ে দেশে ফিরে গেছেন সৌদির ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমান। পাকিস্তান সফর শেষে দিল্লিতে পা রাখার কথা ছিল তার। ইকোনমিক টাইমসের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কাশ্মীর ইস্যু এবং সন্ত্রাসবাদের বিষয়ে ভারতের অবস্থান সম্পর্কে পাকিস্তান ও রিয়াদ আরও ভালোভাবে উপলব্ধি করতে পেরেছে বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

মঙ্গলবার রাতে ভারতে পৌঁছানোর কথা ছিল ক্রাউন প্রিন্সের। ধারণা করা হচ্ছে, কাশ্মীর ইস্যুতে ভারতীয়দের সংবেদনশীলতা উপলব্ধি এবং দিল্লির কৌশলগত তাৎপর্য অনুধাবন করেই তিনি দিল্লি সফর বাতিল করে দেশে ফিরে গেছেন। তবে তার দেশে ফিরে যাওয়া সম্পর্কে পরিস্কারভাবে কিছু জানানো হয়নি। বুধবার ভারতের সঙ্গে তার গুরুত্বপূর্ণ বৈঠক অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। এরপর সেখান থেকে তার চীনে সফর করার কথা ছিল। চীন সফরের মাধ্যমেই তার এশিয়া সফর শেষ করার কথা।
বিনিয়োগ, বিদ্যুৎ এবং আবাসন খাতে দিল্লি এবং রিয়াদের মধ্যে পাঁচটি সমঝোতা স্বারক স্বাক্ষরের কথা রয়েছে। কাশ্মীর ইস্যুতে পাকিস্তানকে একঘরে করার প্রচেষ্টার মধ্যেই সৌদি প্রিন্সের পাকিস্তান সফরকে বিপত্তি হিসেবে দেখছে না ভারত। কারণ তার এই সফরের পরিকল্পনা কাশ্মীরের পুলওয়ামার হামলার আগেই গৃহীত হয়েছে। ভারতীয় একটি সূত্র বলছে, গুরুত্বপূর্ণ প্রত্যাবাসন থেকে প্রতিরক্ষা সহযোগিতাসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে ভারত এবং সৌদি আরবের মধ্যে সম্পর্ক আমূল পরিবর্তন হয়েছে। তাই সবদিক থেকে ভারতের নয় বরং পাকিস্তানেরই চিন্তিত হওয়ার কারণ রয়েছে।

## এবার ফারিয়ার বিস্ফোরক মন্তব্যের দাঁত ভাঙা জবাব দিলেন সানাই: অভিনেত্রী শবনম ফারিয়া বেজায় ক্ষেপেছেন সানাই মাহবুবের উপর। ক্ষোভ প্রকাশ করে রবিবার সন্ধ্যায় শবনম ফারিয়া তার ফেসবুক স্ট্যাটাসে লিখেন, এদের মতো অসভ্য কুলাঙ্গার গুলার জন্য সবার নাম খারাপ হয়! সে নাকি অভিনেত্রী !!! কিসের অভিনেত্রী??? এমন কথার জবাবে ফারিয়াকে অতি মাত্রায় হতাশাগ্রস্ত বললেন সানাই।সামাজিক যোগাযোগে বিব্রতকর ভিডিও প্রকাশের অভিযোগে রবিবার বিকেলে সানাইকে ডিএমপির সাইবার সিকিউরিটি অ্যান্ড ক্রাইম ইউনিটের সাইবার নিরাপত্তা ও অপরাধ দমন বিভাগে আনা হয়। জিজ্ঞাসাবাদের পর তাকে ছেড়ে দেয়া হয়। এরপর সন্ধ্যায় শবনম ফারিয়া তার ফেসবুক ওয়ালে সানাইয়ের উপর ক্ষোভ প্রকাশ করে লিখেছেন- এদের মতো অসভ্য কুলাঙ্গার গুলার জন্য সবার নাম খারাপ হয়! সে নাকি অভিনেত্রী !!! কিসের অভিনেত্রী??? কোথায় কাজ করেছে??? কোন নাটক? কোন সিনেমা?শুধু শুধু এট্যেনশন এর জন্য মিডিয়ার নাম বিক্রি! এসব অশালিন মেয়েদের জন্য আমাদের একশো কথা শুনতে হয়!

এ বিষয়ে সানাইয়ের প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে তিনি বলেন, ওতো মিডিয়ার গাইডলাইন না। সে বলার কে? আসলে তার হাতে কোনো কাজ নেই বলেই হয়তো এমন করছে। সি ইজ ভেরি মাচ ফ্রাস্টেটেড। অতি মাত্রায় হতাশাগ্রস্ত থেকেই সে এসব প্রলাপ বকছে। অন্যদের তো এ নিয়ে মাথা ব্যাথা নাই। তিনি আরো বলেন, ‘ওর মতো সিনিয়র আর্টিস্ট থেকে এসব কথা আশা করিনি। তার স্ট্যাটাসে যে ভাষাগুলো ব্যবহার করেছে, মনে হয় না সে পড়াশুনা শিখে এসেছে।’

Related Post

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •