রাজধানীতে শিক্ষার্থী নিহত- দুই বাসের প্রতিযোগিতায় চাপা পড়ে নিহত হয়েছেন এক মাদ্রাসা শিক্ষার্থী। গতকাল রাজধানীর উত্তরা ১০ নম্বর সেক্টরের ক্যান্সার হাসপাতালের পাশের সড়কে দাঁড়িয়ে থাকা অবস্থায় বিকাশ পরিবহনের একটি বাস ওই শিক্ষার্থীকে চাপা দেয়। পরে হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

উত্তরা পশ্চিম থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. সাদেক জানান, বেলা সোয়া ৩টার দিকে বাসার সামনের রাস্তায় দাঁড়িয়ে ছিলেন তানভীর। এ সময় বিকাশ পরিবহনের দুটি যাত্রীবাহী বাস পাল্লাপাল্লি করে যাওয়ার সময় রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে থাকা তানভীরকে চাপা দেয়। পরে সংজ্ঞাহীন অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

তানভীরের মামা সবুজ ফরাজীর বরাত দিয়ে এ পুলিশ কর্মকর্তা আরো জানান, কুমিল্লা থেকে গত সপ্তাহে বাবা লাল মিয়ার সঙ্গে ঢাকায় বেড়াতে আসেন তানভীর। তিনি ওখানকার একটি মাদ্রাসায় পড়াশোনা করেন।

এদিকে গতকাল বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে রাজধানীর হাজারীবাগে ব্যাটারিচালিত দুটি অটোরিকশার সংঘর্ষে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে।

নিহত মনির হোসেন পেশায় স্যানিটারি মিস্ত্রি। এ ঘটনায় গুরুতর আহত হয়েছেন আরো দুজন। তাদের উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

পথচারীর বরাত দিয়ে হাজারীবাগ থানার ডিউটি অফিসার এসআই আসলাম জানান, হাজারীবাগ বেড়িবাঁধসংলগ্ন শেখ রাসেল স্কুলের সামনে দুটি ব্যাটারিচালিত অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এ সময় মনির হোসেন রাস্তায় পড়ে গেলে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি অটোরিকশা তাকে চাপা দেয়।

এদিকে, ২০১৮ সালে ২৯শে জুলাই নিরাপদ সড়কের দাবীতে আন্দোলনে নামে শিক্ষার্থীরা। সড়কের অব্যবস্থাপনা দূর করতে নয় দফা দাবী উত্থাপন করেছিলেন তারা।

সুত্রঃ বিডিমর্নিং

এবার বাংলাদেশের দিকে ধেয়ে আসছে কালবৈশাখী ঝড়

গ্রীষ্মের আবহাওয়ার মাঝেই এবার জলবায়ুর পরিবর্তন আবারো দেখা গিয়েছে। আর এবার বাংলাদেশের দিকেই ধেয়ে আসছে কালবৈশাখী ঝড়। আর সেই ঝড়ের প্রভাব পড়তে পারে ঢাকা শহরেই।

আবহাওয়াবিদরা স্পষ্ট করে জানাচ্ছেন, এইবারের বৃষ্টির চরিত্রগত পার্থক্য থাকবে। ঝোড়ো হাওয়া বইতে পারে যেমন কালবৈশাখীর সময় হয় ঠিক তেমনটা। বজ্রপাত, শিলাবৃষ্টিও হতে পারে দক্ষিনবঙ্গে। বৃষ্টিপাতের পরিমাণও এই মরসুমের অন্যন্যবারের বৃষ্টির তুলনায় বৃষ্টি বেশি হতে পারে৷

শুক্রবার কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২১.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা স্বাভাবিকের থেকে তিন ডিগ্রি বেশি৷ সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৩.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস,যা স্বাভাবিকের চেয়ে তিন ডিগ্রি বেশি। আর সেটির প্রভাব পড়তে পারে বাংলাদেশেও। আর বাতাসের জলীয়বাষ্পের সম্ভাবনা থাকছে যে ৯৫ শতাংশ।

চাঁদপুরে মাটি কাটতে গিয়ে ২০০ বছরের পুরনো মূল্যবান মূর্তি উদ্ধার , অতঃপর

মিজান লিটন, চাঁদপুর : চাঁদপুর সদর উপজেলার ১০নং লক্ষ্মীপুর মডেল ইউনিয়নের পূর্ব লক্ষ্মীপুর গ্রামে পুকুর থেকে মসজিদের মাটি কাটতে গিয়ে ২০০ বছরের পুরনো মূল্যবান হিন্দুদের গোপাল মূর্তি উদ্ধার করেছে শ্রমিকরা।

ওই মুর্তিটি কিছুদিন শ্রমিকদের কাছে থাকলেও খবর পেয়ে চেয়ারম্যান মো. সেলিম খান তাদের কাছ থেকে নিয়ে তার কাছে রক্ষিত রাখে। পরে রোববার (২৪ ফেব্রুয়ারী) দুপুরে এই শত বছরের পুরনো মূর্তিটি মডেল থানায় এনে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে।

মূর্তিটি হস্তান্তর করার সময় উপস্থিত ছিলেন, চাঁদপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ নাছিম উদ্দিন, তদন্ত ওসি হারুনুর রশিদ, ইন্সপেক্টর মোঃ মনির হোসেন।

মূর্তিটি উদ্ধার করার শ্রমিক শাহাদাত খান জানায়, গত ২৪ জানুয়ারি পুকুরে মাটি কাটতে গিয়ে একটি মুর্তিটি উদ্ধার করি। পুকুরের মালিকের অনুরোধে নিজের কাছেই সংরক্ষিত রাখি। কিন্তু পরবর্তীতে এটি জানাজানি হলে ইউপি চেয়ারম্যান সেলিম খান আমার বাড়ীতে এসে গত ২৭ জানুয়ারি মূর্তিটি নিয়ে যায়।

অবশেষে এক মাস পর চেয়ারম্যান সেলিম খান তার লোকজন পাঠিয়ে এলাকার মানুষের চাপে পড়ে মূর্তিটি পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে। জনমনে নানা প্রশ্ন চেয়ারম্যান সেলিম খাঁন এতদিন কেন মূত্তিটি তার কাছে জব্দ করে রেখেছে। সাথে সাথে কেন পুলিশকে জানাননি এবং হস্তান্তর করেনি এর রহস্য কি।

পুকুরের মালিক আব্দুর রহমান খান বলেন, মূর্তিটি দেখতে অনেকটা নীচে হনুমানের মত। ৪টি পা, বড় বড় কান, কানে ধুল, স্বর্ণের কালার এবং গায়ে খোদাই করা হিন্দি ভাষায় লেখা রয়েছে। এই বাড়ীটি বৃটিশ প্রিয়ডে সত্য সাহাল ঘোষের মালিকানা ছিলো। পরবর্তীতে পিতামহ সিডু খান তাদের কাছ থেকে ক্রয় করেন।

উদ্ধার হওয়ার দিনে ওই পুকুরে ৬জন শ্রমিক কাজ করছিলো। এদের মধ্যে শাহাদাত খানের কোদালের নীচে মূর্তিট কাটা পড়ে।

Related Post

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •