পাকিস্তান ও ভারতের মধ্যকার সাম্প্রতিক উত্তেজনার প্রেক্ষাপটে গত মঙ্গলবার ভোররাতে পাকিস্তানের বালাকোট সীমান্তে হামলা চালায় ভারতীয় সেনাবাহিনী। পরের দিন মঙ্গলবার সকালেও পাকিস্তানের আকাশসীমা লঙ্ঘন করলে দুটি ভারতীয় যুদ্ধবিমানকে গুলি করে ভূপাতিত করে পাকিস্তানের বিমানবাহিনী। এ সময় এক ভারতীয় পাইলটকে আটকও করে পাকিস্তান। প্রথমে ভারত আটকের বিষয়টি অস্বীকার করলেও পাকিস্তান একাধিকার ভিডিও প্রকাশ করার পর বিষয়টি মেনে নেয় ভারত এবং অভিনন্দন নামের ওই পাইলটের মুক্তি দাবি করে। এর পর গতকাল বৃহস্পতিবার পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান পার্লামেন্টে শান্তির নিদর্শন হিসেবে ভারতীয় পাইলটকে আজকের (শুক্রবার) মধ্যে মুক্তির ঘোষণা দেন।

এর পরই ভারতীয় পাইলট অভিনন্দনের ছোট্ট ছেলে বান্নিকে ছয়টি প্রশ্ন করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে একটি পোস্ট দেওয়া হয়। পোস্টটি শেয়ার করেছে পাকিস্তানের সশস্ত্র বাহিনী। এর পর পোস্টটি ভাইরাল হয়েছে। পোস্টটিতে বলা হয়েছে- হে ছোট্ট বানি!! তোমাকে অভিনন্দন এ জন্য যে, তুমি খুব শিগগিরই তোমার বাবাকে আলিঙ্গন করতে যাচ্ছ। আমরা তাকে উপহার হিসেবে তোমার কাছে ফেরত দিচ্ছি যদিও তোমার বাবা, আরো অনেকের মতো, বোমা মারতে এসেছিল।

বান্নি শোন! তোমার কাছে আমার একটা অনুরোধ আছে। যখন তিনি (অভিনন্দন) গিয়ে তোমাকে শক্ত করে জড়িয়ে ধরবে তখন দয়া করে আমার পক্ষ থেকে তাকে কয়েকটি প্রশ্ন করবে। তাকে (তোমার বাবা) জিজ্ঞেস করবে: বাবা, আমার মতো কাশ্মিরি শিশুদের কি অধিকার নেই তাদের বাবাদের সঙ্গে শান্তিতে বসবাস করার? তাকে জিজ্ঞেস করবে, যদি তারা (পাক সেনা) তোমাকে ক্ষুব্ধ জনতার করুণার ওপর ছেড়ে দিতো তাহলে কী হতো? তাকে প্রশ্ন করবে, যুদ্ধ ও ঘৃণার পরিণতি কী? তার কাছে জানতে চাইবে, কী বেশি শক্তিশালী- ঘৃণা না ভালোবাসা? জীবন না মৃত্যু বেশি সুন্দর? তার কাছে জানতে চেয়ো।

আমি তোমার কাছে এসব প্রশ্নের উত্তর জানার জন্য অপেক্ষা করতে থাকব। সুখী থেক ছোট্ট বান্নি, আমি চাই, তুমি তোমার বাবাকে নিয়ে একদিন আমাদের দেশে আসবে, যখন তোমাদের হাতে বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্রের বদলে থাকবে ফুল। তোমার বাবার সাথে ভালো থেক।
মানবতা প্রেমিক।

Related Post