শাওমি মি এ-ওয়ান থেকে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিকর রশ্মি নির্গত হয়। এরপর এই তালিকায় আছে ওয়ানপ্লাস ফাইভ-টি। সম্প্রতি জার্মান ফেডারেল অফিস ফর রেডিয়েশন প্রোটেকশন-এর গবেষণা থেকে এই তথ্য উঠে এসেছে।
ভারতীয় প্রযুক্তিভিত্তিক গণমাধ্যম গেজেটস ৩৬০ ডিগ্রি জানায়, জার্মান ওই সংস্থাটির গবেষণা থেকে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিকারক রশ্মি নির্গত হয় এমন স্মার্টফোনগুলোর তালিকা তৈরি করেছে স্ট্যাটিস্টা। এতে দেখা যায় তালিকায় থাকা বেশিরভাগ স্মার্টফোন শাওমি এবং ওয়ানপ্লাস ব্র্যান্ডের।

সর্বোচ্চ ক্ষতিকর রশ্মি নির্গত হয় শাওমি থেকে, স্যামসাং থেকে সর্বনিম্ন

অন্যদিকে সবচেয়ে কম ক্ষতিকর রশ্মি নির্গমনের তালিকায় শীর্ষে আছে স্যামসাং। বিশেষ করে স্যামসাং গ্যালাক্সি নোট-এইট এবং জেডটিই অ্যাক্সন এলিট স্মার্টফোন সবচেয়ে কম ক্ষতিকর রশ্মি নির্গত করে।
স্ট্যাটিস্টার প্রকাশিত তথ্যে দেখা যায়, শাওমি মি এ-ওয়ান থেকে প্রতি কিলোগ্রামে ১ দশমিক ৭৪ ওয়াট ক্ষতিকারক রশ্মি নির্গত হয়। তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা ওয়ানপ্লাস ফাইভ-টি থেকে নির্গত হয় ১ দশমিক ৬৮ ওয়াট। তৃতীয় অবস্থানে থাকা শাওমির মি ম্যাক্স থ্রি থেকে নির্গত হয় ১ দশমিক ৫৮ ওয়াট।

সর্বোচ্চ ক্ষতিকর রশ্মি নির্গত হয় শাওমি থেকে, স্যামসাং থেকে সর্বনিম্ন

অন্যদিকে সবচেয়ে কম ক্ষতিকর রশ্মি নির্গমনকারী স্যামসাং গ্যালাক্সি নোট-এইট থেকে প্রতি কিলোগ্রামে শুন্য দশমিক ১৭ ওয়াট রশ্মি নির্গত হয়। এছাড়া জেডটিই অ্যাক্সন থেকেও একই পরিমাণ রশ্মি নির্গত হয়।

Leave A Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *