দীর্ঘ ২৮ বছর পর অনুষ্ঠিত ডাকসু নির্বাচনের ফল নিয়ে বিক্ষোভে উত্তাল হয়ে উঠেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়। ছাত্রলীগ, ছাত্রদলসহ কোটাআন্দোলনকারী, স্বতন্ত্র জোট, প্রগতিশীল ছাত্র ঐক্য, ছত্রফন্ট সব কটিদলই নিজ নিজ দাবির পক্ষে ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ করছে।

আনুষ্ঠানিক ফল ঘোষণার পর মঙ্গলবার সকালে ছাত্রলীগের ব্যানারে শুরু হয়েছে বিক্ষোভ। ক্যাম্পাসের বিভিন্ন স্থানে টায়ার জ্বালিয়ে নির্বাচনের ফল জালিয়াতি হয়েছে বলে দাবি করেছেন তারা। রাস্তার পাশে মানব বন্ধনে অংশ নিয়ে ফের অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ ডাকসু নির্বাচন দাবি করছেন তারা।

এদিকে পূর্ব নির্ধারিত কর্মসূচি অনুযায়ী, ছাত্রদলসহ ভোটের দিন দুপুরে ভোট বর্জন কারী স্বতন্ত্র ও প্রগতিশীল জোটের আহ্বানে ক্লাস বর্জন ও ছাত্র ঘর্মঘট চলছে। আজ বিশ্ববিদ্যালয়ের কোনো ক্লাস অনুষ্ঠিত হচ্ছে না।

ছাত্রলীগ:

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) নির্বাচনে ভিপি পদে কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের নেতা নুরুল হক নুর নির্বাচিত হওয়ার পর বিক্ষোভে ফেটে পড়েন ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। ৩:২০ এ ভিসি ফলাফল ঘোষণা করার পরই ভিসি কে অবরোধ করে বিক্ষোভ শুরু করে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

এসময় তারা ভিসি, প্রক্টরের উদ্দেশে উত্তেজনামূলক বক্তব্য দেয়। তারপর রাত ৪ টা থেকেই তারা ভিসির বাসা অবরোধ করে বিক্ষোভ শুরু করে। এসময় তারা প্রহসনের নির্বাচন মানি না মারব না, শিবিরের চামড়া তুলে নিব আমরা, সিন্ডিকেটের নির্বাচন মানি না, মানবো না, নুরুর পরিষদ মানি না মানবো না ইত্যাদি শ্লোগান দিতে থাকে।

অন্যদিকে রেজোয়ানুল হক চৌধুরী শোভন হেরে যাবার পরপরই তার হল মুহসীন হল থেকে ২ রাউন্ড ফাঁকা গুলির শব্দ শোনা যায়। বিক্ষোভ চলাকালীন সময়ে ছাত্রলীগের কর্মীরা এ পদে পুনরায় নির্বাচন ও নুরুর বহিষ্কার দাবি করে। তবে ভিসির বাসা ঘিরে ছাত্রলীগের এ অবস্থানকে কেন্দ্র করে অতিরিক্ত সতর্ক অবস্থায় আছে পুলিশ।

সকাল সাড়ে ১০টা পর্যন্ত ক্যাম্পাসে ছাত্রলীগের বিক্ষোভ কর্মসূচি চলমান ছিলো।

Related Post

Leave A Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *