ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) ও হল সংসদ নির্বাচনে বিজয়ীদের গণভবনে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আগামী শনিবার বিকেল ৪টায় সাক্ষাতের সময় নির্ধারণ করা হয়েছে বলে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস উইংয়ের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর আমন্ত্রণে শনিবার গণভবনে যাবেন বলে নিশ্চিত করেছেন ডাকসুর নবনির্বাচিত ভিপি নুরুল হক নুর। বিভিন্ন গণমাধ্যমকে দেওয়া বক্তব্যে নুর এটিকে ভাগ্য বলে উল্লেখ করেন। তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর আমন্ত্রণ পাওয়া ভাগ্যের ব্যাপার।’

নুর বলেন, ‘দেশের প্রধানমন্ত্রী দাওয়াত দিয়েছেন। আমাদের সবার উচিত সেখানে যাওয়া। আমরা যাচ্ছি গণভবনে।’

এর আগে গত ১১ মার্চ ডাকসু ও হল সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এতে সহসভাপতি (ভিপি) ও সমাজসেবা সম্পাদক পদ ছাড়া ডাকসুর ২৫টি পদের মধ্যে ২৩ টিতেই জয় পায় ছাত্রলীগ। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) নির্বাচনের ইতিহাসে এই প্রথম ক্ষমতাসীন দলের ছাত্রসংগঠন ভোটে বেশির ভাগ পদে নির্বাচিত হলো।

গত সোমবার অনুষ্ঠিত এই নির্বাচনে ভিপি নির্বাচিত হন কোটা সংস্কার আন্দোলনে নেতৃত্ব দেওয়া সংগঠন বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের প্রার্থী নুরুল হক। তিনি পেয়েছেন ১১ হাজার ৬২ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি মো. রেজোয়ানুল হক চৌধুরী (শোভন) পেয়েছেন ৯ হাজার ১২৯ ভোট।

সাধারণ সম্পাদক (জিএস) পদে ১০ হাজার ৪৮৪ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন ছাত্রলীগের গোলাম রাব্বানী। তিনি সংগঠনটির কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের প্রার্থী রাশেদ খান পেয়েছেন ৬ হাজার ৬৩ ভোট।

সহসাধারণ সম্পাদক পদে ছাত্রলীগের সাদ্দাম হোসেন ১৫ হাজার ৩০১ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের প্রার্থী ফারুক হোসেনের চেয়ে তিনি ৯ হাজার ৪০৫ ভোট বেশি পেয়েছেন। এবার ডাকসু নির্বাচনে সর্বোচ্চ ভোট পেয়েছেন সাদ্দাম।

Leave A Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *