নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে দুই মসজিদে বর্বরোচিত সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় সন্ত্রাসী হামলায় ৪৯ জন নিহত হয়েছেন। শুক্রবার ক্রাইস্টচার্চে দুটি মসজিদে জুমার নামাজের সময় ভয়াবহ বন্দুকধারী ওই হামলায় অন্তত ৪০ জন আহত হয়েছেন।

এ হামলায় অন্তর্জাতিক গণমাধ্যম ব্রেইটবার্ট থেকে সংবাদ প্রকাশ হয়। নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জেসিন্দা আরডান এ হামলাকে নিউজিল্যান্ডের জন্য সবচেয়ে অন্ধকার দিন বলে উল্লেখ করেছেন।

এ জঙ্গী হামলায় শোকে কাতর সারা বিশ্ব। এ ঘটনায় শোক ও তীব্র নিন্দা জানিয়েছে বিশ্ব নেতারা। এবার জানিয়েছেন মার্কিন রাজনীতিবিদ হিলারি ক্লিনটন। দুঃখপ্রকাশ করে শুক্রবার টুইট বার্তায় হিলারি ক্লিনটন লিখেছেন, নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে দুই মসজিদে বর্বরোচিত সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় কষ্টে আমার হৃদয় ভেঙেছে।

আমাদের অবশ্যই উচিত বর্ণবাদ ও ইসলাম বিদ্বেষের বিরুদ্ধে চিরস্থায়ী ও ধারাবাহিক লড়াই চালিয়ে যাওয়া। তিনি বলেন, শ্বেতাঙ্গ বর্ণবাদ সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেওয়া উচিত। তাদের বর্বরোচিত এসব হত্যাকাণ্ড বন্ধ করতে হবে।

উল্লেখ্য, ২০১৮ সালে বিশ্বের মধ্যে শান্তিপূর্ণ রাষ্ট্রের তালিকায় নিউজিল্যান্ড ছিল দুই নম্বরে। নিউজিল্যান্ডের মুসলমানরা শান্তিপূর্ণ ও সহানুভূতিশীল হিসেবেই বেশি পরিচিত। অথচ সেই দেশেই শুক্রবার মসজিদের ভেতর ঘটে গেল নারকীয় হামলা।

ক্রাইস্টচার্চ হামলা নিয়ে যা বললেন ওবামা

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের দু’টি মসজিদে স্মরণকালের ভয়াবহ বন্দুক হামলায় ঝড়ে গেছে ৪৯ প্রাণ। আহত হয়ে চিকিৎসাধীন আরও অন্তত ৪৮জন। এ ঘটনায় শোকে স্তব্ধ গোটা দুনিয়া।

নিউজিল্যান্ডে মসজিদে সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় মর্মাহত সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামাও। তিনি সমবেদনা ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন। এক টুইট বার্তায় যুক্তরাষ্ট্রের ৪৪তম এই প্রেসিডেন্ট লিখেন, ‘নিউজিল্যান্ডের সব মানুষের জন্য সাবেক মার্কিন ফার্স্ট লেডি মিশেল ওবামা ও আমি সমবেদনা জানাচ্ছি। বর্বরোচিত ওই হামলায় দুঃখ প্রকাশ করছি এবং মুসলিম সম্প্রদায়ের পাশে রয়েছি। সন্ত্রাসী হামলা তা যেভাবেই হোক, তার বিরুদ্ধে আমাদের ঘৃণা সর্বদা।’

প্রসঙ্গত, শুক্রবার নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের দুটি মসজিদে বন্দুকধারীদের এলোপাতারি গুলিতে ৪৯ জন মারা যান। আহত হয়েছেন অন্তত ৪৮জন।

এই সন্ত্রাসী হামলার সময় আল নূর মসজিদে নামাজ পড়তে যাচ্ছিলেন বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সদস্যরা। তারা মসজিদে ঢোকার কিছুক্ষণ আগে এক পথচারীর কাছ থেকে খবর পেয়ে ফিরে আসেন। ফলে অল্পের জন্য প্রাণে বেঁচে যান ক্রিকেটাররা।এ ঘটনায় বাংলাদেশের তিনজনের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত হওয়া গেছে।

মুসলমানদের বিরুদ্ধে শত্রুতা অলসভাবে দেখছে বিশ্ব : এরদোগান

মুসলমানরা গণহত্যার শিকার হচ্ছেন জানিয়ে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান বলেছেন, মুসলমানদের বিরুদ্ধে শত্রুতা অলসভাবে দেখছে বিশ্ব। এই মুসলমানদের যে ব্যক্তিগতভাবে হয়রানি করা হত, ক্রাইস্টচার্চের আল নুর মসজিদের হত্যাকাণ্ডের মাধ্যমে সীমান্ত ছাড়িয়ে তা গণহত্যায় রূপ নিয়েছে।-খবর এএফপির

তিনি বলেন, এ হামলার ঘটনায় মুসলিম বিশ্বের পক্ষ থেকে নিউজিল্যান্ডের হতাহত নাগরিকদের প্রতি আমি শোক জানাচ্ছি।

এরদোগান বলেন, এখনই যদি পদক্ষেপ নেয়া নয় হয়, তবে আমাদের আরেকটি বিপর্যয়ের খবর শুনতে হবে। ইসলামবিদ্বেষ ও বর্ণবাদ বৃদ্ধির সর্বশেষ দৃষ্টান্ত হিসেবে এ ঘটনাকে দাঁড় করিয়েছেন মুসলিম বিশ্বের এ নেতা।

এর আগে এ সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় নিন্দা জানিয়েছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। তিনি বলেন, সন্ত্রাসবাদ কখনো ধর্ম হতে পারে না। নিহত ও তাদের শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি তিনি সমবেদন জানিয়েছেন।

এদিকে নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জাসিন্দা আরডান বলেছেন, ক্রাইস্টচার্চে যা ঘটেছে, সেটা সন্ত্রাসী হামলা। এখন পর্যন্ত আমরা যা জেনেছি, তাতে এটা পরিষ্কার যে, এ হামলা ছিল সুপরিকল্পিত।

তিনি বলেন, হামলাকারীর গাড়িতে দুটি বিস্ফোরক ডিভাইস যুক্ত করা ছিল। তাদের কাছ থেকে অস্ত্র নিয়ে নেয়া হয়েছে।

ক্রাইস্টচার্চের আল নুর মসজিদে এলোপাতাড়ি গুলি চালিয়ে ৪৯ মুসল্লিকে হত্যা করেছেন অস্ট্রেলিয়ার এক শ্বেতাঙ্গ শ্রেষ্ঠত্ববাদী সন্ত্রাসী। এতে আরও অন্তত ২০ জন আহত হয়েছেন।

-খবর এএফপির

Related Post

Leave A Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *