নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে দু’টি মসজিদে নৃশংস হামলার খবর প্রকাশ হতেই বিশ্বের বিভিন্ন দেশের নেতারা নিন্দা ও শোক প্রকাশ করেন। সেই হামলার ঘটনায় দায়সারা শোক জানিয়ে সমালোচনার মুখে পড়েছে ভারত।

ভারত এই হামলার ঘটনায় সমবেদনা জানিয়ে একটি বিবৃতি প্রকাশ করে। দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে বলা হয়, ক্রাইস্টচার্চের উপাসনালয়ে ঘৃণ্য সন্ত্রাসী হামলার ঘটনার নিন্দা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নিন্দা জানানোর এই বিবৃতি নিয়ে শুরু হয়েছে সমালোচনা। মসজিদে নামাজরত মুসল্লিদের ওপর সন্ত্রাসী হামলা হলেও মোদির বিবৃতিতে ‘মুসলিম’ কিংবা ‘মসজিদ’ শব্দ দু’টির কোনো উল্লেখ নেই। যদিও অস্ট্রেলীয় বংশোদ্ভূত সন্ত্রাসী ব্রেন্টন ব্যারান্ট মসজিদের ভেতরে ঢুকে একেবারে কাছে থেকে মুসল্লিদের গুলি করে হত্যা করে।

পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশি ভারতের প্রধানমন্ত্রীর এই নিন্দা জানানোর ভাষার সমালোচনা করেছেন। তিনি বলেন, হামলার নিন্দা জানানোর বিবৃতিতে নয়াদিল্লি ‘মুসলিম’ কিংবা ‘মসজিদ’ শব্দ দুটি ব্যবহারের সাহস দেখাতে পারেনি।

তিনি বলেন, আল্লাহ না করুক, যদি ভারতের কোনো মন্দিরে হামলার ঘটনা ঘটে, তাহলে পাকিস্তান ভারতের পাশে দাঁড়াবে।

Related Post

Leave A Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *