ফিলিস্তিনের অধিকৃত এলাকায় ইসরায়েল কর্তৃক জোরপূর্বক অবৈধ বসতি নির্মাণের নিন্দায় জাতিসংঘে একটি রেজুলেশন উত্থাপন করেছে নিউজিল্যান্ড।

তবে এর তীব্র বিরোধীতা করে রেজুলেশনটিকে ইসরায়েলের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণার সামিল বলে মন্তব্য করেছে ইসরায়েল।

ইসরায়েলি সংবাদমাধ্যমের বরাত দিয়ে বৃটিশ দৈনিক দ্য গার্ডিয়ান জানায়, শুক্রবার ওয়েলিংটনের সহ-উদ্যোগে রেজ্যুলেশনটি জাতিসংঘে উত্থাপন করা হয়।

রেজুলেশনের প্রস্তাব উত্থাপনের আগে নিউজিল্যান্ডের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মারি ম্যাকলিকে ফোন দিয়েছিলেন ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামেন নেতানিয়াহু। তিনি ম্যাকলিকে রেজ্যুলেশনটি উত্থাপন না করতে ও সমর্থন না দিতে অনুরোধ জানান।

ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বলেন, আপনি যদি এ রেজুলেশন আনেন, তাহলে আমরা মনে করব এটি যুদ্ধের ঘোষণা। এতে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের ফাটল ধরবে এবং আমরা ওয়েলিংটন থেকে আমাদের রাষ্ট্রদূতকে জেরুজালেমে ফিরিয়ে নেব।

এর প্রেক্ষিতে নেতানিয়াহুর অনুরোধ ফিরিয়ে দিয়ে ম্যাকলি বলেন, এই রেজুলেশন আমাদের পররাষ্ট্রীয় নীতিরই প্রতিফলন। এটি নিয়ে আমাদের পদক্ষেপ অব্যাহত থাকবে।

এক পশ্চিমা কূটনীতিক গার্ডিয়ানকে নিশ্চিত করেছেন, দুজনের মধ্যে ওই আলাপ ছিল অত্যন্ত কর্কশ। তবে এ আলাপ সম্পর্কে বিস্তারিত কিছুই বলেনি ইসরায়েলি সংবাদমাধ্যম হারেৎজ।

এদিকে ইসরায়েলি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক শীর্ষ কর্মকর্তা জেরুজালেমে নিযুক্ত কিউই রাষ্ট্রদূত জোনাথন কুরকে ফোনে এই বলে সতর্ক করে দেন, এই রেজুলেশন ভোটাভুটি পর্যায়ে গেলে ওয়েলিংটনে ইসরায়েল তার দূতাবাস বন্ধ করে দেবে।

তবে জাতিসংঘে রেজুলেশন প্রস্তাবসহ আন্তর্জাতিক চাপের ফলে নতুন করে বসতি স্থাপন থেকে সরে আসার ইঙ্গিত দেখা গেছে। দখলকৃত পশ্চিম জেরুজালেমে ৬০০ নতুন বসতি স্থাপনের এজেন্ডা থেকে আচমকা সরে এসেছে দখলদার দেশটি।

Related Post

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave A Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *