পুলওয়ামা হামলার পর জবাব দিতে বালাকোটে এয়ার স্ট্রাইক করে ভারতীয় বিমান বাহিনী। আর তার পর থেকেই সীমান্তে বিশেষ অস্ত্র রাখার ব্যবস্থা করেছে ইসলামাবাদ। মোতায়েন করা হয়েছে চীনের তৈরি গ্রাউন্ড-টু-এয়ার মিসাইল।

গোয়েন্দা সূত্রে খবর, পাকিস্তানে LY-80 মিডিয়াম রেঞ্জ মিসাইল মোতায়েন করা হয়েছে। এগুলিকে HQ-16-ও বলা হয়। ২০১৭ সালে এই মিসাইল পাকিস্তানি সেনার অংশ হয়। এগুলি সহজেই এক জায়গা থেকে আর এক জায়গায় নিয়ে যাওয়া যায়।

৪০ কিলোমিটার দূরের টার্গেটে আঘাত করতে পারে এই মিসাইল। অদূর ভবিষ্যতে ভারত ফের বালাকোটের পর অভিযান চালাতে পারে, এই আশঙ্কাতেই মিসাইলগুলি মোতায়েন করা হয়েছে।

এই মিসাইলের পাঁচটি সিস্টেম রয়েছে পাকিস্তানের হাতে। এটি একটি চীনা মোবাইল এয়ার ডিফেন্স সিস্টেম। আকাশে একাধিক টার্গেট ধ্বংস করতে এটি সক্ষম। এতে রয়েছে 3D টার্গেট সার্চ র‍্যাডার। ১৫০ কিলোমিটার দূর থেকে আসা কোনও বিমান সহজেই ধরা পড়বে রাডারে। এটি ছয় সেল যুক্ত মিসাইল লঞ্চার রয়েছে।

শোনা যাচ্ছে, চীন খুব তাড়াতাড়ি পাকিস্তানকে ‘রেনবো’ নামের ড্রোনও দেবে। বালাকোট এয়ারস্ট্রাইকের পরই ওই ড্রোন কেনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে পাকিস্তান। পাকিস্তান ড্রোনের সংখ্যাও বাড়াবে অনেক।

Related Post

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave A Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *