দীর্ঘদিন ধরেই সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়স ৩৫ বছর করার দাবিতে আন্দোলন করছেন বিভিন্ন সংগঠন। এবার সেই দাবির প্রতি নিজের সমর্থন পূণর্ব্যাক্ত করেছেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) নবনির্বাচিত জেনারেল সেক্রেটারি (জিএস) গোলাম রাব্বানী। রোববার নিজের ফেসবুকে দেয়া এক স্ট্যাটাসে এই সমর্থনের কথা জানান ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক রাব্বানী।

তিনি ফেসবুক স্ট্যাটাসে লিখেন, সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা ৩৫-এ উন্নীত করার দাবিটি আমার কাছে অত্যন্ত যৌক্তিক মনে হয়, আমি নৈতিকভাবে এই দাবিটিকে সমর্থন করি। প্রত্যাশা রাখি, লাখো বেকার ভাই-বোনদের প্রাণের চাওয়াটি সরকার অত্যন্ত ইতিবাচকভাবে দেখবে।

রাব্বানীর ফেসবুক স্ট্যাটাসে বিভিন্ন দেশে চাকরিতে প্রবেশের যে বয়সীমা আছে সেটির একটি তালিকা তুলে ধরেন। সেখানে উল্লেখ আছে-সিঙ্গাপুর, মালয়েশিয়া, কুয়েত, ওমানে চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা ৩৫ বছর।প্রতিবেশি ভারতেও চাকরিতে প্রবেশের বয়স ৩৬ বছর। শ্রীলংকায় ৪০ বছর।

প্রসঙ্গত, সরকারি চাকরিতে বর্তমানে প্রবেশের বয়সসীমা ৩০ বছর। এটি বাড়ানোর দাবিতে দীর্ঘদিন ধরে আন্দোলন করে আসছেন সাধারণ শিক্ষার্থী ও চাকরিপ্রত্যাশীরা। সরকারের পক্ষ থেকে বারবার বলা হয়েছে বিষয়টি বিবেচনাধীন। কিন্তু বিষয়টি আজও সুরাহা না হওয়ায় বেকার চাকরিপ্রার্থীরা চরম হতাশ এবং ক্ষুব্ধ।

Related Post

Leave A Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *