দুই হাতের কব্জি নেই- জন্ম থেকে দুই হাতের কব্জি না থাকলেও নিজের চেষ্টার কমতি নেই তানিয়ার। শারীরিক প্রতিবন্ধকতা অতিক্রম করে ফুলবাড়ী মহিলা ডিগ্রী কলেজ থেকে মানবিক বিভাগ থেকে এইচএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করছেন তানিয়া। কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী ডিগ্রী কলেজের তৃতীয় তলার ৩০২ নম্বর কক্ষে পরীক্ষা দিচ্ছেন তানিয়া।

উপজেলার নাগদাহ গ্রামের বীমা কর্মী তোপাজ্জল হোসেনের মেয়ে শারীরিক প্রতিবন্ধী তানিয়া। দুই ভাই-বোনের মধ্যে তানিয়া বড়।

তানিয়ার মা অর্জিনা বেগম বলেন, ‘অভাবি সংসারের ঝামেলাকে পাশ কাটিয়ে দুই হাতের কব্জি একখানে দিয়ে খাতায় লেখার কৌশল শেখে তানিয়া। পিএসসি (প্রাথমিক পরীক্ষা সমাপনী) ও জেএসসি (জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট) পরীক্ষায় ভাল ফল করে সে। তারপর চন্দ্রখানা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে জিপিএ ৩.৪৫ পেয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘ছোট থেকেই প্রবল ইচ্ছাশক্তি তানিয়ার। ভালোভাবে লেখাপড়া করার ইচ্ছা তার। কলম ধরার সময় প্রথমে কষ্ট হত। তারপর এখন আর সমস্যা হয় না। হাতের লেখাও খুব ভাল। শুধুমাত্র গোসল ও চুল বেঁধে দেয়ার সময় তাকে সহযোগিতা করা হয়।’

ফুলবাড়ী পরীক্ষার কেন্দ্র সচিব ও ফুলবাড়ী ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ আমিনুল ইসলাম রিজু বলেন, ‘তানিয়া তৃতীয় তলার ৩০২ নম্বর কক্ষে পরীক্ষা দিচ্ছে। তার রোল নং ২৯৮৩৫৮। তাকে অতিরিক্ত ২০মিনিট সময় দেয়া হচ্ছে।’তানিয়ার ইচ্ছা- বড় হয়ে প্রশাসনিক কর্মকর্তা হওয়ার। নিজে প্রতিষ্টিত হলে সমাজের প্রতিবন্ধীদেরকে প্রতিষ্ঠিত হওয়ার জন্য চেষ্টা চালিয়ে যাবেন।

Related Post

Leave A Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *