সাইফুল ইসলাম রুদ্র, নরসিংদী জেলা প্রতিনিধিঃ নরসিংদীর রায়পুরায় একই পরিবারের ৪ জন অগ্নিদগ্ধ হয়েছে। মঙ্গলবার ভোরে উপজেলার উত্তর বাখননগর ইউনিয়নের লোচনপুর গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। অগ্নিদগ্ধরা হলো উপজেলার লোচনপুর গ্রামের সামসুল মিয়ার মেয়ে প্রীতি (১১), সুইটি (১৩), মুক্তা (১৬) এবং তাদের ফুফু আব্দুল খালেকের স্ত্রী খাতুন নেছা (৬৫)। আহতদেরকে প্রথমে রায়পুরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেয়া হয়। পরে তাদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটে নেয়া হয়।

স্থানীয়রা জানায়, জমি সক্রান্ত বিষয় নিয়ে লোচনপুর গ্রামের দুলাল মিয়াদের সাথে একই গ্রামের বিপ্লবদের সাথে দ্বন্দ্ব চলে আসছিল। তার জের ধরে প্রতিপক্ষরা দুলাল মিয়াকে হত্যা করে। এ নিয়ে বিপ্লবদের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করা হয়। এরপর থেকে অভিযুক্ত বিপ্লব মিয়ার পরিবার গা-ঢাকা দিয়ে ছিল।

গতকাল সোমবার নিজ বাড়িতে আসেন বিপ্লব মিয়ার পরিবার। এরপর নিজ বাড়িতেই অগ্নিদগ্ধ হয় বিপ্লব মিয়ার পরিবারের তিন বোন ও ফুফু। তবে কীভাবে অগ্নিদগ্ধের এই ঘটনা তা জানেন না স্থানীয় জনপ্রতিনিধিসহ এলাকাবাসী।

রায়পুরা ফায়ার সার্ভিসের ফায়ারম্যান শেখ হানিফ বলেন, লোচনপুর গ্রামে বিপ্লবের বাড়িতে আগুন লেগেছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে ঘটনাস্থলে যাই। কিন্তু সেখানে আগুনে দগ্ধ বা আগুনের কোন আলামত পাইনি।

রায়পুরা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মহসিনুল কবির জানান, বিষয়টি অগ্নিকান্ড নাকি পেট্রোল বোমা সে সম্পর্কে স্পষ্টভাবে অবগত নই। তবে আহতদের সম্পর্কে খোঁজখবর নিয়ে বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ার চেষ্টা চলছে।

মূলত বিপ্লব মিয়া ডাকাত হিসেবেই পরিচিত, একাধিক মামলার আসামি সে। অগ্নিদগ্ধের প্রকৃত ঘটনা উদঘাটনের চেষ্টা চলছে।

Related Post

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •