প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ফেনীর সোনাগাজীর মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফিকে পুড়িয়ে হত্যার ঘটনায় জড়িত কেউ ছাড় পাবে না। তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেওয়া হবে। শুক্রবার বিকেলে প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সভায় এ কথা বলেন তিনি। প্রধানমন্ত্রী বলেন, খুনিদের কয়েকজন ইতোমধ্যে গ্রেফতার হয়েছে। অন্যরাও শিগগিরই গ্রেফতার হবে। তিনি আরো বলেন, আমি ব্যক্তিগতভাবে বিশ্বাস করি যে, তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হওয়া উচিত, যাতে ভবিষ্যতে কেউ এ ধরনের জঘন্য অপরাধ করতে না পারে। প্রধানমন্ত্রী বলেন, কোন কারণ ছাড়াই একজন মাদ্রাসা ছাত্রীকে অধ্যক্ষের আগুনে পুড়িয়ে হত্যা করার মতো জঘন্য ঘটনার নিন্দা জানানোর ভাষা আমার নেই।

নুসরাতের জীবন বাঁচাতে সরকারের প্রচেষ্টার কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমরা মেয়েটিকে বাঁচাতে সর্বোচ্চ চেষ্টা করেছি। এমনকি আমরা মেয়েটিকে উন্নত চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুর পাঠাতে সেখানকার চিকিৎসকদের মতামত নিয়েছি। কিন্তু আমরা কোনো ইতিবাচক সাড়া পাইনি। গত ৬ এপ্রিল ফেনীর সোনাগাজী মাদ্রাসায় গায়ে আগুন দেওয়ার পর নুসরাত ১০ এপ্রিল মৃত্যুর সঙ্গে লড়াইয়ে হেরে যান। প্রধানমন্ত্রী বলেন, ২০১৩ ও ২০১৫ সালে জাতীয় নির্বাচন বানচাল এবং নির্বাচিত আওয়ামী লীগ সরকারের পতন ঘটানোর নামে বিএনপি-জামায়াত জীবন্ত মানুষ পুড়িয়ে হত্যার সংস্কৃতি চালু করে।

Related Post

Leave A Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *