পারিবারিকভাবে বৌভাতের অনুষ্ঠানের মাধ্যমে ঘরে তোলার মাত্র পনেরদিন পর যৌতুকের বলি হলেন ৫ মাসের অন্তঃসত্তা এক গৃহবধূ। আজ শুক্রবার (১৯ এপ্রিল) দুপুরে কুমিল্লার নাঙ্গলকোট উপজেলার বকশগঞ্জ ইউনিয়নের মদনপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত গৃহবধূর নাম আমেনা আক্তার টুম্পা। সে একই উপজেলার ঢালুয়া ইউনিয়নের উরকুটি গ্রামের হারুন অর রশিদের মেয়ে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার বকশগঞ্জ ইউনিয়নের মদনপুর গ্রামের আমিন মিয়ার ছেলে দুলাল মিয়ার সাথে প্রায় ৭ মাস পূর্বে পারিবারিকভাবে বিয়ে আমেনা আক্তার টুম্পার। এরপর গত ৪ এপ্রিল বৌভাত অনুষ্ঠান আয়োজনের মাধ্যমে টুম্পাকে ঘরে তুলে নেয় স্বামী দুলাল। এরইমধ্যে ৪ মাসের অন্তঃসত্ত¡া হয়ে পড়ে টুম্পা। বিয়ের পর থেকেই টুম্পাকে যৌতুকের দাবী ও নানা অযুহাতে নির্যাতন চালাতো। একপর্যায়ে আজ শুক্রবার দুপুরে টুম্পাকে পিটিয়ে হত্যা করে বাথরুমের মধ্যে লাশ রেখে পালিয়ে যায় স্বামী দুলাল ও পরিবারের লোকজন।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে নাঙ্গলকোট থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মিজানুর রহমান পাটোয়ারী বলেন, টুম্পার মরদেহ বাথরুম থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। আমি এখন লাশের সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরী করছি থানায় এসে বিস্তারিত জানাবো।

Related Post

Leave A Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *