ময়মনসিংহের ভালুকা উপজেলায় তৃতীয় শ্রেণির এক ছাত্রী ধর্ষণের শিকার হয়েছে। এই ঘটনায় অভিযুক্ত হেমন্ত চন্দ্র মণ্ডলকে (৫২) আটক করে পুলিশে দিয়েছে স্থানীয় জনগণ।
ভালুকা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মোহাম্মদ মাজহারুল ইসলাম জানান, বুধবার বিকেলে ভালুকার একটি স্কুলের তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রীকে প্রতিবেশী জেলে হেমন্ত চকলেটের লোভ দেখিয়ে তার ঘরে নিয়ে যান। পরে ওই ছাত্রীকে ধর্ষণ করেন হেমন্ত। এ সময় স্কুলছাত্রীর চিৎকারে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে এসে হেমন্তকে আটক করে পুলিশকে খবর দেয়।

এ ঘটনায় ভুক্তভোগী স্কুলছাত্রীর মা বুধবার রাতে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে হেমন্ত চন্দ্র মণ্ডলের বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা করেছেন। পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে হেমন্ত চন্দ্র মণ্ডল স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের কথা স্বীকার করেছেন।
ভালুকা মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মোহাম্মদ মাজহারুল ইসলাম জানান, পৃথক দুটি ধর্ষণের অভিযোগে ২টি মামলা হয়েছে। দুজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।
মাজহারুল ইসলাম আরও জানান, হেমন্ত চন্দ্র মণ্ডল একজন প্রফেশনাল রেপিস্ট। এর আগেও তিনি একাধিক ধর্ষণের ঘটনায় জড়িত। এমনকি তার দুই ছেলের বউ আক্রান্ত হয়ে শ্বশুরবাড়ি থেকে চলে গেছেন।

Related Post

Leave A Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *