টাঙ্গাইলের বাসাইলে নববধূকে সিগারেটের আগুনে ছ্যাঁকা দিয়ে দগ্ধ করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার (২৫ এপ্রিল) রাত ৮টায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে স্বামী সজীব মিয়ার বিরুদ্ধে বাসাইল থানায় মামলা দায়ের করেছেন নববধূর পিতা।
অভিযুক্ত রাজমিস্ত্রি সজীব মিয়া বাসাইল উপজেলার কাঞ্চনপুর ইউনিয়নের আদাজান গ্রামের আজিজুল ইসলামের ছোট ছেলে। সিগারেটের আগুনে জখম নববধূ খাদিজা (১৮) টাঙ্গাইল সদর উপজেলার বাঘিল ইউনিয়নের খুদ্দী জুগনী গ্রামের আবুল হোসেনের মেয়ে। তিনি বর্তমানে টাঙ্গাইল শেখ হাসিনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

খাদিজার বাবা আবুল হোসেন অভিযোগ করে বলেন, ২২ দিন আগে সজীবের সঙ্গে খাদিজার বিয়ে হয়। বিভিন্ন সময় খাদিজার স্বামী যৌতুকের দাবীতে তাকে মারধর করতো। মঙ্গলবার (২৩ এপ্রিল) রাতে যৌতুকের বিষয় নিয়ে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে খাদিজাকে হাত-পা বেঁধে তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে সিগারেটের আগুন দিয়ে ছ্যাঁকা দেয় স্বামী সজীব মিয়া। বুধবার (২৪ এপ্রিল) সকালে খাদিজা বিষয়টি জানালে বিকেলে তাকে আমাদের বাড়িতে নিয়ে আসি। মেয়ের শরীরের বিভিন্ন স্থানে আগুনে দগ্ধ হওয়ায় বৃহস্পতিবার (২৫ এপ্রিল) দুপুরে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করেছি। এ ব্যাপারে বাসাইল থানার অফিসার ইনচার্জ এসএম তুহীন আলী জানান, এ ঘটনায় আসমা বেগম নামের একজনকে আটক করা হয়েছে। বাকি আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

Related Post

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave A Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *