খ্রিস্টানদের একজন যাজক বলেছেন, মুসলমানদের বিষয়ে বিচার (জাজ) করা বন্ধ করুন। তাদেরকে ভালবাসুন। নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে সেই নূর মসজিদের বাইরে বুধবার সমবেত হয়েছিলেন খ্রিস্টানদের একটি গ্রুপ।
তারা দাবি তুলেছিলেন, নিউজিল্যান্ড হলো একটি খ্রিস্টান দেশ। এমন সমাবেশ ও দাবির পর মুখ খুলেছেন নিউজিল্যান্ডের পারাপারাউমু থেকে যাজক ডেরিল ওয়ার্ড। বুধবার নূর মসজিদের বাইরে ডিসটিনি চার্চ খ্রিস্টানরা অবস্থান নিয়ে বক্তব্য দেন। এ গ্রুপটি ম্যান আপ অ্যান্ড লিগেসি নামে পরিচিত। গ্রুপের প্রায় ১০০ সদস্য সেখানে সমবেত হন।

এ সময় তারা ঘোষণা করেন ‘যিশু খ্রিস্ট হলেন প্রকৃত ঈশ্বর’। তাদের এমন বক্তব্যের পর ওই অপেশাদার যাজক ডেরিল ওয়ার্ড ওই মন্তব্য করেছেন। তিনি বলেছেন, মুসলিমদের বিষয়ে আমাদের বিচার বন্ধ করা উচিত। তার পরিবর্তে তাদেরকে ভালোবাসা দিতে হবে। সহানুভূতি দেখাতে হবে।
তিনি বলেন, আমাদের মুসলিম ভাই ও বোনদের বিষয়ে যত্ন নিতে হবে। খ্রিস্টিয়ানিটি কখনো নিউজিল্যান্ডে একমাত্র ধর্মীয় বিশ্বাস ছিল না। ইউরোপিয়ান ও অন্যান্য দেশ থেকে সেখানে মানুষ যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ধর্মীয় বিভিন্নতা এসেছে।
ঔপনিবেশিক যুগ থেকে আধিপত্য বিস্তার করেছে খ্রিস্টিয়ানিটি। তবে তা আস্তে আস্তে কমে এসেছে। পিউ রিসার্স সেন্টার পূর্বাভাস দিয়েছে যে, ২০৫০ সালের মধ্যে নিউজিল্যান্ডে খ্রিস্টানদের বর্তমান শতকরা হার ৫৭ ভাগ থেকে কমে দাঁড়াবে ৪৪.৭ ভাগে। সূত্র : নিউজিল্যান্ড হেরাল্ড।

Related Post

Leave A Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *