ইতোমধ্যে লিগ ওয়ান শিরোপা জিতে নিয়েছে নেইমারের দল পিএসজি। এ সময় আরেকটি ঘরোয়া শিরোপাও তারা ঘরে তুলতে পারতো। কিন্তু হলো না। কিমপেম্বের আত্মঘাতী গোলের পর টাইব্রেকারে হেরে শিরোপা খোয়াতে হলো পিএসজির। ফরাসি কাপের ফাইনাল ম্যাচে শনিবার নেইমারদের হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে রেন। এদিকে গতকাল হারের দরুণ নেইমার হয়তো একটু বিমর্ষ ছিলেন। সাজঘরে ফেরার পথে তাই ভক্তের মুখে চড়িয়ে দিলেন এক ঘুষি। গতকাল শনিবার রাতের ম্যাচে শুরুর ২১ মিনিটে ২-০ গোলে এগিয়ে যায় পিএসজি। ম্যাচের ১৩ মিনিটে নেইমারের নেওয়া কর্নার থেকে বক্সের বাইরে থেকে দুর্দান্ত এক ভলি করেন দানি আলভেজ। গোল ঠেকানোর কোন উপায় ছিল না রেনে গোলরক্ষকের।

এর আগে ম্যাচের তিন মিনিটের মাথায় আলভেজের দারুণ ফ্রি কিক থেকে প্রায় গোল পেয়ে গিয়েছিল পিএসজি। এরপর ম্যাচের ২১ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুন করেন ব্রাজিল তারকা নেইমার। জানুয়ারির পরে মাঠে নেমে নিজের দ্বিতীয় ম্যাচেই গোল পেলেন তিনি। বুঝিয়ে দিলেন ইনজুরি তাকে দমাতে পারেনি। কিন্তু প্রথমার্ধেই পিএসজির এক গোল শোধ দেয় রেনে। কিম্পেম্বে আত্মঘাতী গোল করে দলকে বিপাকে ফেলে দেন। পরে ৬৬ মিনিটে গোল করে সমতা নিয়ে নির্ধারিত সময় শেষ করে রেনে। এদিকে ফাইনাল ম্যাচ। জয়ী দল বেছে নিতে তাই ট্রাইব্রেকার হয়। তাতে ৬-৫ ব্যবধানে পিএসজিতে হারিয়ে শিরোপা নিশ্চিত করে রেনে। এ তো গেল ম্যাচ রিপোর্ট। এবার আসি নেইমারের ঘুষি কান্ডে। ম্যাচ শেষে গ্যালারির ভেতরের সিঁড়ি বেয়ে সাজঘরে যাচ্ছিলেন পিএসজি ফুটবলাররা। ভক্তদের আবদার মিটিয়ে হাতে হাতও দিচ্ছিলেন তারা।

কিন্তু এক ভক্ত সম্ভবত নেইমারের কাছে সেলফির আবদার করেন। নেইমার রাজী না হতেই তিনি কিছু একটা বলেন। ওমনি নেইমার তার মুখে একটা ঘুষি বসিয়ে দিয়ে উপরে উঠে যান। এর আগে নেইমার চ্যাম্পিয়নস লিগের শেষ ষোলোয় পিএসজির হারের ম্যাচে রেফারিকে গালি দেন ইনস্টাগ্রামে। উয়েফা শাস্তি স্বরূপ আগামী মৌসুমের গ্রুপ পর্বের তিন ম্যাচে তাকে নিষিদ্ধ করেছে।

Related Post

Leave A Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *