আর মাত্র ২৯ দিন পরই পর্দা উঠবে টুর্নামেন্টের দ্বাদশ আসরের। বিশ্বকাপের আগে ত্রিদেশীয় সিরিজ খেলবে বাংলাদেশ দল। সেই লক্ষ্যে বুধবার ঢাকা ছাড়বেন মাশরাফি-সাকিবরা।এ উপলক্ষে মঙ্গলবার দুপুরে জাতীয় ক্রিকেট দলের সদস্যরা গণভবনে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করতে গেলে তিনি তাদের নানা পরামর্শ ও উৎসাহ দেন।মাশরাফি-সাকিবদের উৎসাহ দিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমাদের ক্রিকেট টিমের নাম শুনে সবাই এখন ভয় পায়। টাইগারদের এখন সবাই হিসেব করে চলে। এ সময় প্রধানমন্ত্রী মাশরাফি, সাকিব, মুশফিকদের সঙ্গে খোশগল্পে মেতে উঠেন, দেন নানা পরামর্শ। তিনি বলেন, বিশ্বকাপে আত্মবিশ্বাস রেখে খেলবে। কোনো তাড়াহুড়োর প্রয়োজন নেই। লম্বা সময় সেখানে থাকতে হবে। মনোযোগ ধরে রাখবে।

এ সময় টাইগার অধিনায়ক মাশরাফি প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে বলেন, আপা এবার তো বিশ্বকাপের আগে আমাদের ৪-৫ জন ক্রিকেটার বিয়ে করে ফেলছে। হাস্যজ্জল প্রধানমন্ত্রী তখন মাশরাফিকে প্রশ্ন করেন, বউ নিয়ে যাবে না সাথে? ফিরতি উত্তরে মাশরাফি-সাকিবরা বলেন, না ভিসা করার সময় পাইনি। এছাড়া অনেকে আনুষ্ঠানিক ভাবে বিয়ের অনুষ্ঠানও করেনি। দেশে ফিরে করবে। এরপর প্রধানমন্ত্রী বলেন, অনুষ্ঠানের দরকারটা কি। অনুষ্ঠান এসে করা যাবে। বউ সাথে থাকলেও তো একটা বাড়তি অনুপ্রেরণা পাবে। প্রধানমন্ত্রী-মাশরাফিদের এই খোশগল্পে এক আনন্দঘন পরিবেশের সৃষ্টি হয়।

দলের জন্য দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়ে ক্রিকেটারদের খেলার অবসরে যেকোনো প্রয়োজনে তাকে ফোন দেওয়ার পরামর্শও দিয়েছেন শেখ হাসিনা। আজ না হলেও কাল, একদিন না একদিন বিশ্বকাপ জিতবেই বাংলাদেশ, ক্রিকেটারদের নিজের এমন বিশ্বাসের কথাও জানান শেখ হাসিনা। সাক্ষাৎ শেষে গণভবনে প্রধানমন্ত্রী ও ক্রিকেটাররা একসঙ্গে দুপুরের খাবার খান।

Related Post

Leave A Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *