পাবনার রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র প্রকল্প এলাকায় কর্মকর্তা-কর্মচারীদের থাকার জন্য আবাসন পল্লীর বিছানা, বালিশ, আসবাব কেনা ও তা ভবনে তোলায় নজিরবিহীন দুর্নীতির অভিযোগ এনে বিচার বিভাগীয় তদন্তের দাবিতে হাইকোর্টে রিট করা হয়েছে। রোববার হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ও ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউটর ব্যারিস্টার সৈয়দ সাইয়্যেদুল হক সুমন জনস্বার্থে এ রিটটি করেন। আগামীকাল সোমবার হাইকোর্টের বিচারপতি তারিক উল হাকিম ও বিচারপতি মো. সরওয়ারদীর সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চে শুনানি হতে পারে বলে জানান সুমন। রিটে গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের সচিব, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক মন্ত্রণালয় সচিব, পাবনার গণপূর্ত অফিসারসহ সংশ্লিষ্টদের বিবাদী করা হয়েছে বলেও জানান ব্যারিস্টার সুমন।

আরো পড়ুন, মোদী যে গুহায় ধ্যানে বসেছিলেন, সে গুহায় ওয়াইফাই থেকে শুরু করে টয়লেটের ব্যবস্থাও ছিল! ভারতের ক্ষমতাসীন উগ্র হিন্দুত্ববাদী দল বিজেপির নেতা ও দেশটির বর্তমান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী চলতি নির্বাচনের একদম শেষ মুহূর্তে এসে ধ্যানে বসেন। ২ কিলোমিটার পায়ে হেঁটে উত্তরাখন্ডের কেদারনাথের ওই গুহায় গিয়ে ধ্যানে বসেন তিনি। এ দিনই কেদারনাথ মন্দিরে পূজা করে গুহার ভিতরে ধ্যানে বসেন মোদী, কেদারনাঠের গুহাটি ১০ ফুট বাই ৮ ফুটের। তাতেই প্রায় ১৮ ঘণ্টা ধ্যানমগ্ন থাকলেন মোদী। সেই গুহায় ওয়াইফাই ও টেলিফোনের ব্যবস্থা রয়েছে বলে জানা গিয়েছে। রয়েছে শৌচালয় ও অন্যান্য সুযোগ-সুবিধাও। শনিবার কেদারনাথে পুজো সেরে সারারাত ধ্যান। গায়ে গেরুয়া কাপড় জড়িয়ে পদ্মাসনে ধ্যানে বসেন মোদী।

Related Post

Leave A Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *