রাইস কুকারে ভাত রান্না রাইস কুকারে ভাত রান্না করতে সাধারণত এক কাপ চালে দুই কাপ পানি লাগে । অর্থাৎ পানি দিতে হবে চালের দ্বিগুণ । তবে পাত্রের আকার , চালের জাত , চুলার তাপ ইত্যাদির তারতম্যে এই হিসাব হেরফের হতে পারে । প্রথমে কুকারের ঢাকনা উঠিয়ে ভেতরের বল বাটিটা বের করে নিন । দিতে হবে পরিমাণমতো চাল এবং পানি । পাত্রের তলা ভালোভাবে মুছে নিয়ে বসিয়ে দিন কুকারের ভেতরে ।

এবার চালু করে দিন যন্ত্রটি ৷ ২০ থেকে ২৫ মিনিটেই ভাত তৈরি ৷ বসা ভাত রান্না এক পট চাল নিলে তাতে তিন পট পানি দেবেন । ফুটে উঠলে জ্বাল কমিয়ে দিন , এবং খুন্তি বা চামচ দিয়ে ভাত নেড়ে দিতে থাকুন যাতে উপরে শক্ত ভাত ও নীচে গলে যাওয়া ভাত না হয়ে যায় । ভাত শুকিয়ে গেলে কিছুক্ষণ দমে রেখে নামিয়ে নিন ।

হয়ে গেল শুকনো ঝরঝরে বসা ভাত ; মাড় গালার কোন ঝামেলাই নেই । বসা ভাত ঝরঝরে করতে চাইলে প্রয়োজনের চাইতে সামান্য একটু পানি কম দিন । মাড় ফেলে ভাত রান্না যদি মাড় ফেলে রান্না করতে চান , তাহলে একটু বেশী পরিমান পানি ভাল করে উথরালে চাল ধুয়ে তাতে দিন ।

চাল ফুটলে মাড় ফেলে দিন । আর যদি মাড় না ফেলে রান্না করতে চান , তাহলে চাল এর দেড় গুন পানি দিয়ে ঢেকে চুলায় বসিয়ে দিন । চাল ফুটে পানি যখন একেবারে কমে যাবে তখন আঁচ একেবারে কমিয়ে ঢেকে রেখে দিন । আধ ঘন্টা পর নেড়ে দিন। ভাত একেবারে ঝরঝরে হবে । ভাত রান্নার সময় প্রচুর পানি ব্যবহার করুন । যতটা চাল নেবেন তার অন্তত ৩/৪ গুণ পানি দিন । কেননা চালে থাকে স্টার্চ , পানি কম হলে সেটার কারণে ভাত আঠা আঠা হয়ে যায় । বেশি পানিতে রান্না করা ভাত এমনিতেই ঝরঝরে হবে ।

Related Post

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave A Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *