ফের খবরেরে শিরোনামে বিগ বস বিজয়ী টেলি অভিনেত্রী শিল্পা সিন্ডের নাম উঠে এলো। কিছুদিন আগে তার টুইটারে তিনি হটাত পোস্ট করলেন একটি প’র্ন ভিডিওর লিঙ্ক। লিঙ্কটি আপলোড হওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই উঠতে থাকে আসে সমালোচনার ঝর। শুধু সাধারণ মানুষ বা ফ্যানেরাই নয়, এই ভিডিও নিয়ে সমালোচনা করেছেন তার ঘনিষ্ঠ আত্মীয়রাও, ফলে চর্চায় তিনি।

এই ঘটনার বেশ কিছুদিন আগে শিল্পার একটি আপত্তিকর ভিডিও আপলোড হয় ঐ সাইটে। খুব স্বাভাবিক ভাবেই ঐ ভিডিও ভাইরাল হয়ে যায়। শিল্পা ভিডিওটির আসল লিঙ্কটি শেয়ার করে এটাই বোঝাতে চেয়েছেন যে ওই পুরনো ভিডিওটির মেয়েটি আসলে শিল্পা নন। সেটা অন্য কেউ ছিল। সেই ভিডিওটিকে কারু-কার্য করে শিল্পার ভিডিও বলে চালানো হয়েছে।

শিল্পা লিঙ্কটি শেয়ার করে লেখেন “আপনারা ভিডিওটি দেখলে বুঝতে পারবেন একটি অন্য মেয়ের ভিডিও, যা আমার ভিডিও বলে চালানো হয়েছে। যাদের জীবনে কোন কাজ নেই তারা অপরের সর্বনাশ করে নিজেদের সময় কাটায়। এটি হল আসল ভিডিও যা থেকে আমার ভিডিওটি বানানো হয়েছে।এই পোস্টটির মিশ্র প্রতিক্রিয়া হতে শুরু করে আপলোডের পর। আসতে শুরু করে বিভিন্ন ধরনের কমেন্ট। কেউ কেউ শিল্পার এই পোস্টটি কে সাপোর্ট করেছেন, আবার কেউ তার তীব্র প্রতিবাদ করেছেন।

সবার কমেন্টকে পেছনে ফেলে ভাইরাল হয়ে যায় বিগ বসের আর এক প্রতিযোগী হিনা খানের বয় ফ্রেন্ড রকি জয়সওয়ালের একটি কমেন্ট। জানিয়ে রাখি শিল্পার ভাইয়ের খুব ভালো বন্ধু হল রকি। তাদের মধ্যে খুব ভালো সম্পর্ক।

তবুও রকি এই কাজে সমর্থন করলেন না শিল্পাকে। তিনি বলেন – “শিল্পা, তোমার সাথে যা হয়েছে, সেটা খুব খারাপ একটা ঘটনা। তাই নিয়ে অবশ্যই তোমার প্রতিবাদ করার অধিকার আছে।কিন্তু তুমি কি একবারও ভেবে দেখেছ যে, যে মেয়েটার ভিডিও আপলোড হয়েছে হয়তো সেও কোন প্রতারণার শিকার হয়েছে বা হয়তো তাকে দিয়ে এই কাজটা জোর করে করানো হয়েছে। তাই ভিডিওটা এভাবে সবার সামনে তুলে ধরা তোমার উচিৎ হয়নি।”

বয়ফ্রেন্ডকে সাপোর্ট করে হিনা খান লেখেন – “সত্যিই এই ঘটনা খুব দুঃখজনক। পাবলিক ফিগার হওয়া সত্ত্বেও সচেতন হচ্ছেন না সেলিব্রিটিরা। তারা কয়েক সেকেন্ডে কোটি কোটি মানুষের কাছে পৌঁছানের ক্ষমতা রাখেন বলে এই নয় যে তারা তাদের ক্ষমতার অপব্যবহার করবেন। এই সব ব্যাপারগুলো নিয়ে আমাদের আরো বেশি সচেতন হওয়া উচিৎ।”

Related Post

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave A Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *