বর্তমান সময়ে পরকীয়া সম্পর্ক বিকট আকার ধারণ করেছে। যা প্রায় প্রতিদিনই কোনো না কোনো মিডিয়ার খবরে পাওয়া যায়। স্ত্রী রয়েছে তবুও লুকিয়ে অন্য নারীর প্রেমে মজেছেন স্বামী। আবার স্বামী রয়েছে তবুও লুকিয়ে অন্য পুরুষের প্রেমে মজেছেন স্ত্রী।

সম্প্রতি এমনই একটি ঘটনা ঘটেছে। তা হলো- স্ত্রী রয়েছে তবুও লুকিয়ে অন্য এক নারীর প্রেমে মজেছিলেন স্বামী। দীর্ঘদিন যাবত তার এই কাণ্ড চলছিল। কিন্তু, তার যে এমন পরিণতি হবে, তিনি হয়তো তা কল্পনাই করেন নি। সম্প্রতি সেই পরকীয়া প্রেমিকার সঙ্গে শারীরিক মিলনের সময় ঘটে গেল এই বিপত্তি।ভারতীয় একটি গণমাধ্যমের প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়, কেনিয়ার একটি হোটেলে সম্প্রতি পরকীয়া প্রেমিকার সঙ্গে যৌন মিলনের সময় ওই ব্যক্তির পুরুষাঙ্গ আটকে যায়।জানা গেছে, ওই ব্যক্তি একটি হোটেল রুম ভাড়া করে তার প্রেমিকাকে নিয়ে আসেন। শারীরিক মিলন চলাকালীন তারা চিৎকার চেঁচামেচি শুরু করেন এবং সাহায্যের জন্য অ্যালার্ম বাজান। পরে হোটেলের কর্মীরা সেখানে প্রবেশ করে দেখেন, তাদের যৌনাঙ্গ এমনভাবে আটকে গেছে যে তারা আলাদা হতে পারছিলেন না।

পরে হোটেলর কর্মীরা চেষ্টা করেও তাদেরকে একে অপরের থেকে আলাদা করতে না পেরে ওঝা ডেকে আনেন। এক পর্যায় ঝাড়ফুঁক করে পরকীয়া জুটিকে আলাদা করার চেষ্টা করেন ওই ওঝা। কিন্তু, তিনিও ব্যর্থ হন। শেষ পর্যন্ত ওই যুগলদের চিকিৎসকের কাছে নিতে হয়।চিকিৎসকরা জানান, এই অবস্থার নাম ‘পেনিস ক্যাপটিভাস’।চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, এমন ঘটনা বিরল, তবে নজিরবিহীন নয়। এর আগেও এক সঙ্গীতশিল্পী আর এক শিল্পীর স্ত্রীর সঙ্গে মিলিত হতে গিয়ে এই অবস্থায় পড়েছিলেন। উগান্ডায় ঘটা সেই ঘটনার ভিডিও চাঞ্চল্য সৃষ্টি করেছিল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।

Related Post

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave A Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *