সৌদি সরকার

বাংলাদেশ থেকে আরও শ্রমিক নিতে চায় সৌদি সরকার। বাংলাদেশে সফররত সৌদি সুরা কাউন্সিলের স্পিকার ড. আব্দুল্লাহ বিন মোহাম্মেদ বিন ইবরাহিম আল-শেখ এ আগ্রহের কথা জানিয়েছেন। শুক্রবার ঢাকার হোটেল লা মেরিডিয়ানে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলীর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন সৌদি স্পিকার।

এ সময় তিনি সৌদি আরবে কর্মরত বাংলাদেশি বিশেষ করে পেশাজীবী, চিকিৎসক, ইঞ্জিনিয়ার ও দক্ষ শ্রমিকদের প্রশংসা করেন। পররাষ্ট মন্ত্রণালয় থেকে গণমাধ্যমে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গতিশীল ও দূরদর্শী নেতৃত্বে বাংলাদেশের অর্থনীতিতে উল্লেখযোগ্য অগ্রগতির প্রশংসা করেন সৌদি স্পিকার।

সৌদি আরব-বাংলাদেশের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক নতুন নতুন সুযোগ সৃষ্টির মধ্যদিয়ে সম্প্রতিক বছরগুলোতে এক নতুন মাত্রায় পৌঁছেছে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রীও অনুরূপ মনোভাব প্রকাশ এবং স্পিকারকে চলমান উন্নয়ন প্রকল্প সর্ম্পকে অবহিত করেন। বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকারের ‘ভিশন ২০২১’-এর আওতায় খাদ্য নিরাপত্তা, দারিদ্র্য বিমোচন, পল্লী উন্নয়ন ও নারীর ক্ষমতায়নসহ অন্যান্য আর্থ-সামাজিক অগ্রগতি সম্পর্কে অবহিত করেন। সৌদি স্পিকার মুসলিম উম্মাহর সংহতি ও ঐক্য আরও জোরদারকরণের বিষয়েও আলোচনা করেন।

ঢাকায় নিযুক্ত সৌদি রাষ্ট্রদূত আব্দুল্লাহ এইচ. এম. আল-মুতায়রি এ সময় উপস্থিত ছিলেন। জাতীয় সংসদের স্পিকার ও সিপিএ নির্বাহী কমিটির চেয়ারপারসন ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সঙ্গেও বিদায়ী সাক্ষাৎ করেন সৌদি স্পিকার।

সাক্ষাৎকালে উভয় স্পিকার দ্বিপাক্ষিক স্বার্থ-সংশ্লিষ্ট বিষয় নিয়ে আলোচনা করেন। আলোচনাকালে স্পিকার শিরীন শারমিন দুই দেশের সংসদীয় পর্যায়ে সম্পর্ক জোরদারের বিষয়ে গুরুত্বারোপ করেন এবং বলেন, উভয় দেশের সংসদীয় পর্যায়ে সফর বিনিময়ের মাধ্যমে বিদ্যমান সম্পর্ক সুদৃঢ় করা সম্ভব।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন- চিফ হুইপ আ স ম ফিরোজ এমপি, পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী এমপি, হুইপবৃন্দ, সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতিবৃন্দ, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সংসদীয় দলের সেক্রেটারি নূর-ই-আলম চৌধুরী এমপি প্রমুখ।

Related Post

Leave A Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *