প্লাস্টিকের বোতলে চড়ই পাখি ধরার অসাধারন কৌশল #২ নাম্বার টি দেখলে আপনি অবাক হবেন। দয়া করে কেউ এটা করবেন না পোস্ট টির শেষে ভিডিও দেওয়া আছেঃ মুক্ত পাখিঃ ভোর হতে না হতেই চড়ুই পাখির কিচিরমিচির শব্দে ঘুম ভাঙত সেলিমের। দূর প্রতিদিনই একই কাণ্ড ঘটতে থাকলে কি চলে? সকালবেলার ঘুমের মতো মজার ঘুম আর নেই। পাখিগুলো ধরার ফাঁদ তৈরি করে সে। একটা সুতো গোল করে তার মাঝে কয়েকটা ভাত ছিটিয়ে দেয়। চড়ুইগুলো যখনই ভাত খেতে আসে জোরে টান দেয়। কিন্তু চড়ুই উড়ে যায়। অবশেষে দু’টি পাখি ধরা গেল। খাঁচায় বন্দী করে চাল থেকে বেছে কিছু ধান আর পানি খেতে দিলো। নাহ পাখি খাদ্যের দিকে একবারও ফিরে তাকায়নি। সারা দিন শুধু খাঁচা থেকে বের হওয়ার জন্য ছটফট করেছিল। পরদিন সেলিম ভাবল থাক, চড়ুই পাখি দুটোকে ছেড়েই দিই। কিন্তু ছেড়ে দিতে এসে দেখল চড়ুই পাখিগুলো কী সুন্দর করে ধান খাচ্ছে। মুখে একটা বা দুটো ধান ঠোকর দিয়ে নিয়ে চাল খেয়ে ফেলছে কিন্তু খোসাটা ফেলে দিচ্ছে। এই দেখে আর ছাড়তে ইচ্ছা হলো না, দুই দিন পর দুটো চড়ুইই মারা গেল। আসলে পাখির ধর্ম হলো মুক্ত আকাশে উড়ে বেড়াবে আর খুঁজে খুঁজে অল্পস্বল্প যা খাদ্য পাবে তা খেয়ে জীবন নির্বাহ করবে। খাঁচার ভেতর শত রকমের খাদ্যও তার জন্য সুখ বয়ে আনে না। পাখি দুটোর মৃত্যুতে সেলিম খুব কষ্ট পেয়েছিল এমনকি সবার অল্েয সে কেঁদেছিল। চড়ুই পাখির ঘটনা তখন ভুলে গিয়েছিল সেলিম। এমন সময় তার বাবা তাকে এনে দিলেন একটি কথা বলা টিয়াপাখি। টিয়া বেশ কথা বলতে পারে। বাবা-মা, কে আপনি? আসসালামু আলাইকুমসহ আরো অনেক কথা। কলা, শুকনোমরিচ, ভাত, চাল বা ধান সবই দেয়া হতো। হঠাৎ টিয়া খুবই অসুস্থ, মরে যাবে, মরে যাবে ভাব। তখনই মনে পড়ল চড়ুইগুলোর কথা। কিছু কিছু পাখি নাকি রাগ করে নিঃশ্বাস না নিয়ে মারা যায়। টিয়া নাকি এমনই পাখি, মুরব্বিদের কাছে শুনেছে সেলিম। বাবার কাছে অনুমতি নিয়ে টিয়াটিকে ছেড়ে দেয়। কিন্তু এ কী! মরে যায় অবস্থার টিয়া এত ভালো হলো কিভাবে? খাঁচা থেকে মুক্ত হয়ে এক উড়ালে পুরো মুক্ত আকাশে মেঘের সাথে মিলিয়ে গেল।
টিভিতে একটা খবর দেখে অঝোরে কান্না আসছে সেলিমের, শিলাঝড়ে একটি পাখি অভয়াশ্রমে কয়েক হাজার পাখি মারা গেছে। এখন আর সেলিমের ভোরে ঘুম হয় না। মোরগে কুককুরুকু, চড়ুই পাখির কিচিরমিচির বা কাকের কা কা শব্দ শোনার জন্য মনটা কেমন জানি আনচান করে। শহুরে জীবনে আজ মুক্ত আকাশে জাতীয় পাখি দোয়েলকে উড়তে দেখা যায় না, উড়ে কল-কারখানার ধোঁয়া, ধুলোবালি কিংবা নিকোটিনের ধোঁয়া। কাকের কা কা কিংবা মোরগের মর্মস্পর্শী ডাক না শুনে শুনতে হয় গাড়ির হর্নের শব্দ। সেলিম ভাবতে থাকে শিলাঝড়ে না হয় কিছু পাখি মারা গেল কিন্তু পাখি ব্যবসায়ীদের হাতে তো এর কয়েক গুণ বেশি পাখি বন্দী। আজ থেকে শপথ নেয় সে, একটি একটি করে পাখি কিনবে আর উড়িয়ে দেবে মুক্ত আকাশে। সেখানে পাখি উড়ে বেড়াবে সীমাহীন আনন্দে।

প্লাস্টিকের বোতলে চড়ই পাখি ধরার অসাধারন কৌশলঃ

প্লাস্টিকের বোতলে চড়ই পাখি ধরার অসাধারন কৌশল #২ নাম্বার টি দেখলে আপনি অবাক হবেন।

প্লাস্টিকের বোতলে চড়ই পাখি ধরার অসাধারন কৌশল #২ নাম্বার টি দেখলে আপনি অবাক হবেন। দয়া করে কেউ এটা করবেন নাVideo Credite: Imaginative Guy

Posted by Atn24online.com on Tuesday, September 18, 2018

Related Post

Spread the love
  • 1.1K
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    1.1K
    Shares