ক্রিকেট বিশ্বে ইসলামিক মানসিকতা নিয়ে কিছু মুসলমান খেলোয়াড়ের জীবনযাপন খুব আলোচিত ও প্রসংশিত। স্রোতের বিপরীতে দাঁড়িয়ে ইসলামের নিয়ম-কানুন মানার জন্য হাশিম আমলা, মঈন আলীদের অবশ্যই শ্রদ্ধা প্রাপ্য। তবে এবার জানুন আমাদের মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের অসাধারণ গল্প।
‘সাইলেন্ট কিলার’ খ্যাত মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের একজন নামাজী বান্দা। পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ পড়েন, রোজার মাসে রোজা থেকেই প্র‍্যাকটিস করেন, খেলা থাকলে ড্রেসিং রুমে নামাজ আদায় করেন। কিছুদিন আগে প্র‍্যাকটিস ফিল্ডেও নামাজ পড়ার একটা ভিডিও আপলোড করেছিলো সতীর্থ লিটন দাস, যেটা মোটামুটি ভাইরাল হয়েছিল।
বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের জার্সিতে কেবল একটি বাঘের ছবি থাকে। একটু ভাল করে খেয়াল করেন তো। কিছু ধরতে পারছেন? রিয়াদ এর প্র‍্যাকটিস কিট এর বিসিবির লোগোটার দিকে খেয়াল করেন।
রিয়াদের বাঘের ছবিটার উপর টেপ মারা। জ্বী রিয়াদ এই কিট গায়ে দিয়ে নামাজ পড়েন বলেই বাঘের ছবিটাকে টেপ দিয়ে ঢেকে দিয়েছেন। ইসলাম ধর্ম মতে গায়ের পোশাকে কোন জীব জন্তুর ছবি থাকলে নামাজ হবে না।

এবার প্রশ্ন আসতে আরে মূল জার্সিতে কেন টেপ মারেনা। বলছি, মূল জার্সিটা পড়ে রিয়াদ নামাজ পড়েন না। নামাজের সময়ে ওই জার্সিটা গায়ে থাকেনা তার। চুপচাপভাবে তিনি ঠিকই কিন্তু তার কাজ করে যাচ্ছেন।

আর ক্রিকেট মাঠে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের অবদানের কথা আলাদাভাবে বলার কিছু নেই। নিয়মিত ভাবে দলের জন্য অবদান করে যাচ্ছেন এই টাইগার ডানহাতি ব্যাটসম্যান।

Related Post