বাজে আম্পেয়ারিং এ যদি লিটন দাস আউট না হতেন তা হলে হয়ত বাংলাদেশের স্কোরটা আরেকটু বেশি হত। কিন্তু রন্ডি টাকারের বিতর্কিত আম্পারিংয়ে তা হয়ে উঠেনি আর।

কুলদীপ যাদবের বলে ১২১ রানে স্ট্যাম্পিংয়ের শিকার হয়ে মাঠ ছাড়েন লিটন। তবে আউট একে বারে বিতর্কিত। এতে আরও প্রমানিত ভারতের বিপক্ষে আবারও আম্পায়ারের বিমাতাসুলভ আচরণ।
আর এর শিকার হলো বাংলাদেশ। দুর্দান্ত ফর্মে থাকা লিটন দাসকে কোনোভাবেই যখন বোলাররা পরাস্ত করতে পারছিল না ভারতীয় বোলাররা।

ঠিক সেই মুহুর্তেই রন্ডি টাকার বিতর্কিত ভাবে আউট করেন লিটন দাসকে। এই আউটের পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে রন্ডির এই সিদ্ধান্তের বিপক্ষে ঝড় উঠেছে।

সবশেষ বাংলাদেশের স্কোর দাড়ায় ২২২ রান সব উইকেট হারিয়ে। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ৩ উইকেটে জয় পেয়েছে ভারত।

ভারতের এই জয়ে বাংলাদেশকে শান্তনা দিয়ে বলেন, ক্রিকেটের সৌন্দর্য নষ্ট করেছেন আম্পায়ার ! আজ লিটনকে যে আউট দেওয়া হয়েছে এটা পুরোপুরি নিজেদের মনগড়া সিদ্ধান্ত আমার মনে হচ্ছে। কেননা এই রায় টা আসার কথা ছিল ব্যাটসম্যান্দের পক্ষে এই রায় কেনো উল্টিয়ে গেলো।তারপর বাংলাদেশ যে পাওয়ার দেখিয়েছে ভারত তা সারা জীবন মনে রাখবে। বেস্ট অফ গুড লাক বাংলাদেশ।

এদিকে ভারতের  নিজ দেশের ইএসপিএনের উপস্থাপক সঞ্জয় মাঞ্জেরকরসহ অন্যরাও বলছেন, এক্ষেত্রে বেনিফিট অব ডাউট ব্যাটসম্যানের পক্ষে যাওয়া উচিত ছিল। তিনি বলেন, যে সিদ্ধান্ত নিতে এত বার রিপ্লে দেখতে হয়েছে সেটি ব্যাটসম্যানের পক্ষে না যাওয়ায় কিছুটা বিস্মিত হয়েছি।

Related Post