এশিয়া কাপের ফাইনালে সবচেয়ে বেশি বিতর্ক ছড়িয়েছে লিটন দাসের আউটটি। ব্যক্তিগত ১২১ রানে মহেন্দ্র সিং ধোনির স্টাম্পিংয়ের শিকার হন লিটন। রিপ্লেতে দেখা গেছে লিটনের পা লাইনে ছিল। বেশ কয়েকটি অ্যাঙ্গেল থেকে দেখেও সিদ্ধান্ত নেওয়া সম্ভব হচ্ছিল না। এর ফলে ‘জুম ইন’ করে দেখার সিদ্ধান্ত নেন তৃতীয় আম্পায়ার রড টাকার।
দৃশ্যপট বড় করার পর দেখা যায়, লাইনের ওপরেই ছিল লিটনের পা। তবে লাইনের পেছনে কোনো অংশে তাঁর পা ছিল না। ‘অন দা লাইন’-এর ব্যাপারে সিদ্ধান্ত পুরোপুরি আম্পায়ারের হাতে এবং লিটনকে আউট ঘোষণা করা হয়। যদিও ‘বেনিফিট অব ডাউট’ ব্যাটসম্যানের পক্ষেই যায়।

লিটনের সেই আউট নিয়ে ওঠা বিতর্কে মুখ খুললেন বাংলাদেশ দলের এই কোচও, ‘খুবই ক্লোজ ডিসিশন ছিল। আমি বলতে পারছি না, এটা আউট নাকি নট আউট ছিল। এটা খুবই কঠিন ছিল। ম্যাচ শেষে ম্যাচ রেফারির সঙ্গে কথা বলেছি আমি।
তিনি বলেছেন, চারজন আম্পায়ারই নিশ্চিত ছিল, দাগের ভেতরে কিছু ছিল না। যদি পা দাগে থাকে তাহলে তুমি আউট। ক্রিকেটে এসব মেনে নিতেই হবে এবং সামনে এগোতে হবে।’
রোডস আরও বলেন, ‘ক্রিকেটে আপনি মেনে নিতে শিখেন, একদিন আপনার পক্ষে যাবে, আরেকদিন আপনার বিপক্ষে। সেদিন ফাইনাল ম্যাচে আমাদের হয়ে সেঞ্চুরি করা ব্যাটসম্যান আউট হয়েছে, বলতেই হয় সিদ্ধান্ত আমাদের বিপক্ষে গেছে।’

Related Post