নিজে রিক্সাচালক, তবে সন্তান তার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্রাজুয়েট।
গর্বে মুখে তাঁর প্রশস্ত হাসি।❤
সন্তানের হাত ধরে এগিয়ে যাবে বাংলাদেশ।

ছবি: শাহরিয়ার সোহাগ। কলাভবন, ঢা.বি.
ফেসবুক এ ছবিটি ভাইরাল হয়।
Tushar Ahmed কমেন্ট করেছেন।
ছেলে গ্রাজুয়েট হয়নি গ্রাজুয়েট হয়েছে বাবা❤️আজ বাবা যেন বিশ্বের সবচেয়ে সুখি ব্যক্তি!
আমার কাছে খুশি এজন্য লাগতেছে যে ছেলে সফলতা পেয়ে তার রিকশাচালক বাবাকে ভুলেনি!আজকালকার সংখ্যাগরিস্ট মাদারচোদরা সফলতা পেয়ে বাপ মা ভুলে যায়

Ehteshamul Haque Bhuiyan কমেন্ট করেছেন।
কি মন্তব্য করবো বুঝতে পারছিনা। ছবিতে চোখের মতো আমার ভাষাও আটকে গেলো যেন।
পিতা তুমি ধন্য…
তোমার গর্বিত ছেলের জন্য….
মোঃ তারিকুর রহমান কমেন্ট করেছেন। এই সব বাবাদের প্রধান অতিথির সাথে বসে সন্মান জানানোর ব্যবস্থা করা উচিত।বঙ্গবন্ধুর ভাষায় বললে এরাই দেশের আসল মালিক,এদের সন্মান করে কথা বলতে বলছিলেন বাকশাল গঠনের প্রথম ভাষণে।

Related Post