যে পাঁচ কারণে মশা – বসে আছেন বন্ধুদের দলে। কিন্তু মশাদের টার্গেটে যেন আপনিই। এদিক ওদিক থেকে এসে আপনার গায়েই যেন সূচ ফুটিয়ে পালাচ্ছে মশার দল।
কিন্তু এত লোক থাকতে আপনিই কেন? কোনও নির্দিষ্ট কারণ আছে কি? বিশেষজ্ঞরা বলছেন, আছে, নইলে সাধে কি আর মশারা বেছে বেছে কাউকে কামড়ায়!
তা কেন মশারা বেছে বেছে বিশেষ কাউকেই কামড়ায়?
ব্লাড গ্রুপ: বিশেষ ব্লাড গ্রুপ এর জন্য দায়ী। দেখা গিয়েছে o+ , o- দুই ব্লাড গ্রুপের মানুষকেই বেশি মশা কামড়ায়। সুতরাং এই ব্লাড গ্রুপের মানুষদের মশা তাড়ানোর ব্যবস্থা নেওয়া ছাড়া আর কিছু করার নেই।
গর্ভবতী: মশাদের টার্গেটে থাকে গর্ভবতীরাও। কেন? জানা যাচ্ছে, গর্ভবতীদের শরীরে এক বিশেষ ধরনের গন্ধ থাকে, যা মশাদের আকৃষ্ট করে। তাই ঝাকে ঝাকে তারা গর্ভবতীদের দিকে ছুটে আসে। এ ব্যাপারে মহিলাদের আগে ভাগে সতর্ক থাকতে হবে।
আরো পড়ুনঃ
যে সব খাবার রক্ত পরিশোধন করে বিশুদ্ধ করে!
দেহ নামের গাড়িটি সর্বক্ষণ সচল রাখতে শরীরে যে ‘ফুয়েল’ নি:শব্দে কাজ করে যাচ্ছে, তা হলো আমাদের রক্ত। তবে এই রক্তকে বিশুদ্ধ রাখতে, দূষণমুক্ত রাখতে আমরা কিন্তু কোনো পদক্ষেপই নেই না।
মাঝে মাঝে শরীরে কিছু লক্ষণ দেখা যায়, যা থেকে বোঝা যায় যে আমাদের রক্ত আসলে ক্ষতিকর টক্সিন বয়ে বেড়াচ্ছে। সেসব লক্ষণ হেলাফেলা করা ঠিক না। রক্তকে টক্সিন বা ক্ষতিকর উপাদানমুক্ত করে বিশুদ্ধ করা একটি খুব গুরুত্বপূর্ণ বিষয়।
যেহেতু শরীরে সঠিক ভাবে রক্ত পরিবহন করার মাধ্যমেই আপনি সুস্থ থাকেন, তাই এই রক্ত পরিশোধন জরুরি। যখন রক্ত পরিশুদ্ধ হয়, তখন পুরো শরীরই সুন্দর ভাবে কাজ করতে পারে। এতে করে কিডনিসহ গুরুত্বপূর্ণ সব অঙ্গ বিকল হওয়ার ঝুঁকি কমে।

রক্ত টক্সিন মুক্ত হয়ে বিশুদ্ধ হলে শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বেড়ে মাথা ব্যথা, ক্লান্তি, চুলকানি সহ বিভিন্ন চর্মরোগ থেকে মুক্তি পাবেন আপনি।
তাই কোন ধরণের সুপার ফুড আপনার রক্ত পরিশোধন করতে পারে, তা জেনে নেই চলুন-
রসুন: প্রচুর পরিমাণ অ্যান্টি অক্সিডেন্ট ও খনিজ পদার্থ থাকায় রসুন খারাপ কোলেস্টেরল কমিয়ে রক্ত বিশুদ্ধ হতে সাহায্য করে। তাই প্রতিদিন রসুন খেলে উপকার পাবেন।
হলুদ: ব্যাকটেরিয়া ধ্বংস করা, শ্বাস প্রশ্বাসের সমস্যা কমানোর মতো বেশ কিছু উপকারিতা আছে হলুদের। এই মসলা রক্ত পরিশোধনে বেশ কার্যকর।
ধনিয়া ও ধনেপাতা: কোলেস্টেরল কমিয়ে রক্ত বিশুদ্ধ রাখতে ধনিয়া ও ধনেপাতা বেশ উপকারি। ধনিয়া ও ধনেপাতায় ভিটামিন এ, সি, কে, বি থাকে। এরা রক্ত পরিশোধনে ভালো ভূমিকা রাখে।
পুদিনা পাতা: অ্যান্টি অক্সিডেন্ট ও অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল সমৃদ্ধ পুদিনা পাতা প্রতিদিন নিয়মিত খেলে রক্ত পরিশোধিত হয় কার্যকরভাবে। তাই সব সময় পুদিনা পাতা খাওয়ার চেষ্টা করুন।
লাল মরিচ: ভিটামিন এ, বি, সি, ই , কে যেমন আছে প্রচুর, তেমনি এই মরিচে পটাশিয়াম ও ম্যাগনেশিয়ামও আছে। এসব উপাদান রক্ত পরিশোধন করে কার্যকর ভাবে।
গাজর: রক্ত পরিশোধনের ক্ষেত্রে সবচেয়ে ভালো এক সবজি গাজর। এটি ত্বক, চুল ও চোখের জন্যও খুব উপকারী।
করল্যা: এই সবজি রক্ত পরিশোধনে আশ্চর্যজনক কাজ করে। এছাড়া ব্লাড সুগার লেভেল নিয়ন্ত্রণে রাখা ও খারাপ কোলেস্টেরল কমাতেও সাহায্য করে এটি।
বিট: ভিটামিন এ ,বি,সি, কে, ফলিক এসিড ও প্রচুর আঁশ আছে এই সবজিতে। এটি খুব ভালো রক্ত পরিশোধক।

Related Post

Spread the love
  • 328
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    328
    Shares