চামিন্দা ভাস। এ নামটা শুনেই কি মনে পরছে ২০০৩ বিশ্বকাপের কথা। ভয়ঙ্কর হয়ে উঠেছিলেন লঙ্কান পেসার। এক ওভারেই নিয়েছিলেন হ্যাট্রিকসহ ৪ উইকেট। আশরাফুল ছাড়া ওই সময়ের আর কোনো ক্রিকেটারের নাম মনে করতে পারছেন না ভাস।
তবে সময় বদলেছে। টাইগার ক্রিকেট এখন নাড়া দিচ্ছে গোটা বিশ্ব। কেমন দেখছেন এ সময়ের বাংলাদেশকে। ওই সময় সবাই তরুণ ছিলো। শেখার সময় ছিলো বাংলাদেশের। এখন অনেক অভিজ্ঞতা হয়েছে। মাশরাফি, সাকিবরা তাদের শতভাগ দিয়ে খেলছে। ফলে এ দলটা আরো অনেক দূর যাবে। চামিন্দা ভাস সফল লঙ্কান ফাস্ট বোলার। শুধু লঙ্কা কেনো। ওয়ানডেতে স্বদেশি মুরালিধরন, পাকিস্তানি ওয়াসিম আকরাম ও ওয়াকার ইউনুসের পর সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি। তার ঝুলিতে ৪০০ ওয়ানডে উইকেট। টেস্ট উইকেট ৩৫৫। এমন অভিজ্ঞ এক ক্রিকেটার বলছেন, টাইগার বোলারদের দেখে তিনি রীতিমত বিস্মিত। বারবার ফাইনালে হারছে বাংলাদেশ। কিভাবে উত্তরণ সম্ভব সেটাও বাতলে দিলেন ভাস। শ্রীলঙ্কা সাবেক বোলার চামিন্দা ভাস বলেন, বাংলাদেশের বোলিং অ্যাটাক খুব ভালো। রীতিমত বিস্ময়কর। আমি নিশ্চিত করে বলতে পারি, কোচের পরামর্শে বোলাররা কঠোর পরিশ্রম করছে। তারা চেষ্টা করছে তাদের সেরাটা দেওয়ার। আপনার প্রবল ইচ্ছে থাকতে হবে। শেষ বল পর্যন্ত লড়াই করতে হবে। এশিয়া কাপে বাংলাদেশ খুব ভালো খেলেছে। ভারতের জন্যও ম্যাচটা জেতা কঠিন ছিলো। কিন্তু এখন সবাইকে বিশ্বাস রাখতে হবে যে আমরা পারব। আমরা জিতবো। আমি খুব নিশ্চিত করে বলতে পারি এ অবস্থা থেকে বেরিয়ে আসবে বাংলাদেশ।

Related Post