একটু দাঁড়ান আমি লুঙ্গিটা পরে নিই …..

ত্রিভুবন খ্যাত কৃপণ ছিলেন ভবেশবাবুর বাবা। তিনি যখন মৃত্যু শয্যায় তখন ছেলেকে বলে যান- আমি তো আর থাকবো না; তবে যদি কখনো কোনো বিষয়ে কোনো পরামর্শের প্রয়োজন হয়, আমার এক কৃপণ বন্ধু আছে, তার নাম হর কুমার, তার কাছ থেকে পরামর্শ নিবি।ভবেশের বাবার মৃত্যু হলো। পরে জায়গা-জমি সংক্রান্ত একটা ব্যাপারে ভবেশবাবু পরামর্শ নিতে একদিন সন্ধ্যার পর পিতৃবন্ধু হর কুমারের কাছে গেলেন।কাকা হরকুমার ভবেশকে সাদরে ঘরে নিয়ে বসালেন।এসময় হরকুমার বললেন, কথা বলতে তো আর আলোর প্রয়োজন নেই, তাহলে বাতিটি নিভিয়ে দেই।
হর কুমার বৈদ্যুতিক বাতিটি নিভিয়ে দিলেন।কথাবার্তা শেষে ভবেশবাবু যখন উঠতে যাবেন, তখন হর কুমার বললেন- দাঁড়াও, বাতিটা এবার জ্বালিয়ে দেই, নইলে তুমি বেরুবার রাস্তা দেখতে পাবে না।ভবেশ তখন বললেন- একটু দাঁড়ান কাকা, আমি লুঙ্গিটা পরে নিই।হরকুমার অবাক হয়ে জিজ্ঞেস করলেন- মানে? তুমি কি এতক্ষণ লুঙ্গি না পরা অবস্থায়ই আমার সঙ্গে কথা বলছিলে?ভবেশ বললেন- আজ্ঞে কাকা! অন্ধকার ঘরে লুঙ্গি পরে সেটার অপচয় করে কি লাভ? খুলে রাখলে বরং লুঙ্গিটার পরমায়ু অন্তত ৩/৪ ঘণ্টা তো বাড়বে!এমন জবাব শুনে হরকুমারবাবুর হার্ট অ্যাটাকের দশা হলো! হতাশ কণ্ঠে বললেন- তুমি কেন অযথা আমার কাছে পরামর্শ নিতে এসে সময়ের অপচয় করলে? তুমি তো ইতোমধ্যেই আমাকে ছাড়িয়ে গেছো, বাপু…

(Visited 197 times, 2 visits today)

Related Post

You may also like...