শূন্য রানে ইনিংস ঘোষণা দুই দলের, অতঃপর…

অনিশ্চিত গৌরবময়তার খেলা ক্রিকেট। ব্যাট-বলে এ খেলায় প্রতিনিয়তই ঘটে অনন্য সব ঘটনা যেগুলো সাড়া জাগায় সকলের মনে। তেমনই এক ঘটনা ঘটলো এবার নিউজিল্যান্ডের প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট প্লাংকেট শিল্ডে।
সেন্ট্রাল ডিস্ট্রিক্টস ও ক্যান্টাবুরির মধ্যকার চার দিনের ম্যাচে বৃষ্টি হানা দেয়ায় ম্যাচের ফলাফল আনতে দুদলই নিজেদের একটি করে ইনিংস আত্মবিসর্জন দেয় এবং রোমাঞ্চকর সমাপ্তি আনে ম্যাচে। সেন্ট্রাল ডিস্ট্রিক্টস নিজেদের দ্বিতীয় ও ক্যান্টাবুরি নিজেদের প্রথম ইনিংসটি ঘোষণা করে কোনো বল ব্যাটিং না করেই। তবে নিজেদের প্রথম ইনিংসে অসাধারণ ব্যাটিংয়ের সুবাদে ম্যাচে ১৪৫ রানের ব্যবধানে জয় পেয়েছেন সেন্ট্রাল ডিস্ট্রিক্টস।
গত ১০ অক্টোবর তারিখে এবারের প্লাংকেট শিল্ডের প্রথম রাউন্ডের ম্যাচে মুখোমুখি হয় সেন্ট্রাল ডিস্ট্রিক্টস ও ক্যান্টাবুরি। টসে হেরে আগে ব্যাট করতে নামে সেন্ট্রাল ডিস্ট্রিক্টস। প্রথম দিনে ৯৬ ওভার ব্যাটিং করে ৭ উইকেট হারিয়ে ৩০১ রান করে তারা। বৃষ্টিতে ভেসে যায় ম্যাচের দ্বিতীয় ও তৃতীয় দিন।

চতুর্থ দিন সকালে শুরু হয় ম্যাচ। প্রথম দিনের ৩০১ রানের সাথে আরও ৫১ রান যোগ করে নিজেদের প্রথম ইনিংসে ঘোষণা করে সেন্ট্রাল ডিস্ট্রিক্টস। তাদের সংগ্রহ দাঁড়ায় ৭ উইকেটে ৩৫২ রান। দলের পক্ষে উইলেম লুডিক ১১৬, রস টেলর ৭৫, ড্যান ক্লেভার ৫৬ ও ক্রিশ্চিয়ান লেপার্ড করেন ৫২ রান।

ম্যাচের শেষ দিনের আড়াই সেশনে দুই দলের তিন ইনিংস বাকি থাকায় ম্যাচের ফলাফল অনুমান করাই যাচ্ছিলো, সেটি হলো ড্র। তবে সহসাই নিষ্ফলা ম্যাচে রাজি ছিলো না দুই দল। তাই দুই দলের অধিনায়ক ও ম্যানেজার মিলে সিদ্ধান্ত নেন অভিনব কিছু করার।
যেই ভাবা, সেই কাজ ক্যান্টাবুরি নিজেদের প্রথম ইনিংসে কোনো বল না খেলেই ইনিংস ঘোষণা করে দেয়। পরে সেন্ট্রাল ডিস্ট্রিক্টসও করে একই কাজ। অর্থাৎ দুই ইনিংস শেষ শূন্য রানে শূন্য উইকেটে। ফলে ম্যাচ জিততে ৮৯ ওভারে ৩৫৩ রানের লক্ষ্য দাড়ায় ক্যান্টাবুরির সামনে।
অভিনব ঘটনার জন্ম দিয়ে রান তাড়া করতে নামে ক্যান্টাবুরি। কিন্তু ম্যাচের চতুর্থ ইনিংসে দুই দিন বৃষ্টিতে ভেজা উইকেটে সুবিধা করতে পারেনি তারা। মাত্র ৬২ ওভারে ১৩১ রান তুলতেই সাজঘরে ফিরে যায় ৯ ব্যাটসম্যান। নিশ্চিত পরাজয়ের দ্বারপ্রান্তে চলে যায় ক্যান্টাবুরি।
সেখান থেকে পাল্টা লড়াই শুরু করেন ক্যান্টাবুরির শেষ ব্যাটসম্যান। উইকেটে কাটিয়ে দেন প্রায় ২৫ ওভার। যোগ করেন ৭৬ রান। দিন শেষের তখন বাকি মাত্র ৭টি বল। এই সাত বল কাটিয়ে দিলেই ড্র হয়ে যাবে ম্যাচ।
তখন ঘটে ম্যাচের সবচেয়ে রোমাঞ্চকর ঘটনাটি। পুরো ইনিংসে ১৫ ওভার বোলিং করেও কোনো উইকেট না পাওয়া রায়ান ম্যাকোন সরাসরি বোল্ড করে দেন ক্যান্টাবুরির ১১ নম্বর ব্যাটসম্যান অ্যান্ড্রু হ্যাজেল্ডিনকে। মাত্র ১ ওভার বাকি থাকতে ম্যাচটি হেরে বসে ক্যান্টাবুরি। নিশ্চিত ড্র থাকা ম্যাচে রোমাঞ্চ আনতে গিয়ে ম্যাচ শেষে তাদের ডুবতে হয় হেরে যাওয়ার বেদনায়।

(Visited 150 times, 1 visits today)

Related Post

You may also like...