নাম রনি, জাহিদ, মিলন গাবতলিতে টোকাই এর কাজ করে এদিকে আসে মাঝে মাঝে, সবার বয়স ই ১২/১৩ এর কাছাকাছি, রনির বাবা নেশা করে জাহিদ আর মিলন এর বাবা মারা জাওয়ার পর কপালে জুটেনি পরাশুনা। আসল কথায় আসি প্রায় ৬ মাস ধরে ওরা আমার দোকানের সকল প্লাস্টিক ড্রিংক্স এর বোতল আর অন্যন্য জিনিশ নিয়ে জায় বিনামূল্যে। আজ ও নিতে এসেছিল, এসেই বলে ভাই বাইরে গরম অনেক একটু এসিডা ছারবেন। এসি ছাড়ার পর জেটা বুঝলাম ওরা খাবার এর দিকে তাকিয়ে কার কাছে কয় টাকা আছে দেখছে। আর গুনছে আমি বললাম কি কিছু খাবা? ওরা বলল, ভাই আইজকা সকাল থেইক্কা কোন বোতল বেচতে পারি নাই আর টাকা আছে আমাগো কাছে ৭০ টাকা, এখন যদি এই টাকা দিয়া খাই ঘরে চাইল ডাইল নিয়া জাইতে পারমু না সবাই না খাইয়া থাকব। বললাম সারাদিন কিছু খাও নাই? বলে সকালে রুটি খাইছিলাম এখনো খাই নাই। জেন লজ্জায় মাখা কথাগুলো অভিমান নিয়ে বলছে। জাই হোক বুঝেছিলাম ওদের ক্ষিদা লেগেছে আকাশ চুম্বি। বললাম কি খাবা বলো সমস্যা নাই আমি খাওয়াবো ভাই হিসেবে। ওরা খাবে না, বলল না মামা খামু না। আমি জোর করেই বসালাম বললাম কি খাবা বলো?? না খেলে বাইন্ধা রাখমু।

বলল ভাই আপনের জা ভাল লাগে সেইটা দেন। ক্ষিদার পেটে পাথর দিলেও খাইতে পারমু। জাই হোক ওদের চিকেন ফ্রাই দিলাম। জাহিদ বলল ওহ মুরগি ভাজা সেই একবার ভ্যানেরাতে ফালাইয়া দিছিল তহন এক পিস খাইছিলাম। তো সেটা খাইয়া নাকি অনেক মজা পাইছে। পরে এক জায়গায় খাইতে জাইয়া শুনে এক পিস এর দাম ১১৫ টাকা, আর বলল ১১৫ টাকা দিয়া আমাগো দুইদিনের ভাত খাওয়ার চাইল হইয়া জাইব। জাহিদ আর মিলন এর ছোট বোন আছে একে অন্যের দিকে তাকিয়ে বলল নুরি আর ফাতেমারে একদিন মুরগি ভাজা খাওয়ামু চাইছিলাম,চল এক কাম করি এইগুলাই প্যাকেট কইরা লইয়া জাই। জাই হোক আমি শুনে ফেলি ওদের কথা। কি করা প্রতিবার এর মত নিজেকে ধরে রাখতে পারিনি দিয়ে বললাম তোমাদের গুলো প্যাকেট করতে হবে না আমি দিয়ে দিচ্ছি তোমাদের বোন এর জন্য।ছোট বোনের ভালবাসা আর ক্ষুদার যন্ত্রনা এই দুইয়ে কম্বিনেশন এর ব্যক্ষা আমার থেকে বেশি কেউ জানে না! জীবনে ক্ষুদার জন্য অনেক কষ্ট করেছি তাই এখন কাউকে টাকা দিয়ে সাহায্য না করতে পারলেও যখন দেখি কেউ ক্ষুদার্থ নিজের জা আছে তা দিয়েই খাওয়াই।। তারপর?? তারপর তারা তাদের পকেট থেকে যে কয়টাকা ইনকাম ছিল। আমাকে দিতে চাইল। আমি বললাম মাইর দিয়া লক্ষী ছারাইয়া দিমু। জাও এটা বড় ভাই হিসেবে খাওয়াইলাম। অবশেষে এক পরিতৃপ্তি আমাকে আকরে ধরল। বুক ভরে একটা নিশ্বাস নিতে পারলাম। মনে হল মহান আল্লাহ খুশি।

Related Post

Spread the love
  • 1.7K
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    1.7K
    Shares