‘একটি ঘোষণা গত ৪ অক্টোবর তারিখে পোড়াদিয়া বাজারে কিছু টাকা পাওয়া গিয়াছে, টাকার মালিককে তার হারানো টাকা বুঝে নেয়ার জন্য অনুরোধ জানানো যাচ্ছে।’ ব্যতিক্রম এই মাইকিংয়ে পথচারীরা থমকে দাঁড়িয়ে ঘোষণাটি কান পেতে শুনছেন। প্রতিনিয়তই যখন ছিনতাই, চুরি, ডাকাতি ও প্রতারণার মাধ্যমে টাকা খোয়ানোর কথা শুনেই মানুষ অভ্যস্ত, আর কুড়িয়ে পাওয়া টাকা প্রকৃত মালিকের কাছে পৌঁছে দিতে নিজের টাকা ও শ্রম ব্যয় করে মাইকিং করে প্রচার চালানোর ঘোষণা শুনে পথচারীদের হতবাকই করল। কুয়েত থেকে ছুটিতে আসা মো. সুমন মিয়ার সততায় এলাকাবাসী মুগ্ধ। সুমন কটিয়াদী উপজেলার পার্শ্ববর্তী মনোহরদী উপজেলার বড়চাপা ইউনিয়নের চরকৃষ্ণপুর গ্রামের মৃত মো. তোতা মিয়ার ছেলে। জানতে চাইলে সুমন মিয়া যুগান্তরকে জানান, তিনি কুয়েত প্রবাসী। ৪ মাসের ছুটি নিয়ে বাড়িতে এসেছেন তিনি। তিনি বলেন, গত ৪ অক্টোবর বেলাব উপজেলার পোড়াদিয়া বাজারে গরু মহলে অনেকগুলো টাকা মাটিতে পড়ে রয়েছে দেখে- তা আমি আমার হেফাজতে রাখি এবং বাজার পরিচালনা কমিটিকে জানাই। পরে বাজার পরিচালনা কমিটির মাধ্যমে বাজারে মাইকিং করা হয়। সুমন আরও বলেন, টাকা কুড়িয়ে পাওয়ার পর বেশ কিছুদিন অতিবাহিত হলেও মালিকের সন্ধান না পাওয়ায় মনোহরদীসহ পার্শ্ববর্তী উপজেলাগুলোতে ব্যাটারিচালিত অটোরিকশায় দুটি মাইক দিয়ে প্রচার চালিয়েছি। টাকার প্রকৃত মালিককে তার সঙ্গে যোগাযোগ করে টাকা নিয়ে যাওয়ার জন্য অনুরোধ জানান তিনি।

Related Post