কোটি টাকার চেক-ফেনসিডিলসহ চট্টগ্রামের জেলার আটক (ভিডিও)

চট্রগ্রাম কারাগারের জেলার সোহেল রানা বিশ্বাসকে নগদ ৪৪ লাখ ৪৩ হাজার টাকা, কোটি টাকার বিভিন্ন ব্যাংকের চেক, ২ কোটি ৫০ লাখ টাকার ডিপোজিট বই, ও ১২ বোতল ফেনসিডিলসহ অাটক করেছে রেলওয়ে থানা পুলিশ।
অাটককৃত জেলার সোহেল রানা বিশ্বাস ময়মনসিংহ সদরের অার কে মিশন রোড এলাকার মো.জিন্নত অালীর ছেলে।
শুক্রবার (২৬ অক্টোবর) দুপুর ১টায় চট্রগ্রাম থেকে ছেড়ে অাসা ময়মনসিংহগামী বিজয় এক্সপ্রেস ট্রেনে তল্লাশি চালিয়ে মাদক, নগদ টাকাসহ তাকে অাটক করা হয়।
রেলওয়ে থানা পুলিশ জানান, অাজ দুপুরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ময়মনসিংহগামী বিজয় এক্সপ্রেস ট্রেনে তল্লাশি চালিয়ে সন্দেহজনকভাবে তার নিকটে থাকা ২টি ব্যাগ জব্দ করে থানায় নিয়ে অাসা হয়। থানায় এসে ব্যাগ খুলে বিপুল পরিমাণ নগদ টাকা, চেক, ডিপোজিট বই, মাদক পাওয়া যায়। সেসব টাকা কারা পরিদর্শকের নিজ নামে ময়মনসিংহ সদর শাখার ব্রাক ব্যাংকে ২০ লাখ, সাউথইস্ট ব্যাংকে ৪০ লাখ, প্রিমিয়াম ব্যাংকে ৭০ লাখ টাকার চেক। সেসব চেকগুলোর উত্তোলনের তারিখ ছিল অাগামী ২৮ অক্টোবর। এছাড়াও তার স্ত্রী হোসনে অারা পপির নামে প্রিমিয়ার ব্যাংকে ৫০ লাখ, মার্কেন্টাইল ব্যাংকে ৫০ লাখ টাকা ও তার শ্যালক রাকিবুল হাসান নামে মার্কেন্টাইল ব্যাংকে ৫০ লাখ টাকাসহ মোট ২ কোটি ৮০ লাখ টাকার ডিপোজিট চেকবইসহ বিভিন্ন ব্যাকের ৩টি খালি চেক পাওয়া যায় ।
এ বিপুল পরিমাণ টাকার বিষয়ে জানতে চাইলে চট্রগ্রাম কারাগারের কারা পরিদর্শক সোহেল রানা বিশ্বাস বলেন, অামি দীর্ঘ ১৮ বছর যাবত চট্রগ্রাম কারাগারে পরিদর্শক হিসাবে চাকরি করছি। অামার তো টাকা থাকতেই পারে। এ বিপুল পরিমাণ টাকার উৎসের কথা জানতে চাইলে এ বিষয়ে কিছু বলতে ইচ্ছুক না বলে তিনি জানান।
ভৈরব রেলওয়ে থানা অফিসার ইনচার্জ অাব্দুল মজিদ জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অাজ দুপুরে ভৈরব জংশনে চট্রগ্রাম থেকে অাসা ময়মনসিংহগামী বিজয় এক্সপ্রেস ট্রেনে তল্লাশি চালিয়ে নগদ টাকা ও মাদকসহ তাকে অাটক করা হয়।
ধারণা করা যাচ্ছে এ বিপুল পরিমাণ টাকা অবৈধ উপায়ে উপার্জিত টাকা নিয়ে চট্রগ্রাম থেকে নিজ বাড়ি ময়মনসিংহ সদরে যাচ্ছিলেন তিনি। তার বিরুদ্ধে ভৈরব রেলওয়ে থানায় মামলা দায়ের প্রক্রিয়া চলছে।

৪৪ লাখ টাকা ও ফেনসিডিল সহ চট্টগ্রামের কারা পরিদর্শক সোহেল রানা আটক

আজ "চট্টগ্রামে"** ৪৪ লাখ টাকা ও ফেনসিডিল সহ চট্টগ্রামের কারা পরিদর্শক সোহেল রানা আটক**এছাড়া জেলার সোহেল রানা বিশ্বাসের কাছ থেকে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকে নেওয়া ১ কোটি ৩০ লাখ টাকার চেক ও তার স্ত্রীর নামে ২ কোটি ৫০ লাখ টাকার এফডিআর সংক্রান্ত নথি উদ্ধার করা হয়েছে।{সূত্র বাংলাদেশ প্রতিদিন}

Posted by Atn24online.com on Friday, October 26, 2018

(Visited 54 times, 1 visits today)

Related Post

You may also like...