জিম্বাবুয়েকে হোয়াইটওয়াশ করার মিশনে শেষ ম্যাচে লক্ষ্য যখন ২৮৭ রানের তখন ইনিংসের প্রথম বলেই সাজঘরে ফিরে যান লিটন কুমার দাস। যার ফলে বাড়তি চাপ চলে আসে আগের দুই ম্যাচে অসাধারণ ব্যাটিং করা ইমরুলের কাঁধে। এ ম্যাচে তিনি সঙ্গী হিসেবে পেয়ে যান সৌম্য সরকারকে।

দুজন মিলে শুধু চাপ সামাল দেননি, ওলট-পালট করে দিয়েছেন দেশের ইতিহাসের জুটির প্রায় সব রেকর্ড। তাদের ২২০ রানের জুটিতেই মূলত ৭ উইকেটের সহজ জয় পেয়েছে বাংলাদেশ। ম্যাচ শেষে ইমরুল জানিয়েছেন শেষ ম্যাচে রান তাড়া করার যে চাপ ছিল সেটা দূর হয়ে গেছে সৌম্যর ভয়ডরহীন ব্যাটিংয়ে।
কিন্তু ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে সৌম্য বলেছে আক্ষেপের কথা। অবশ্য আক্ষেপ নয় দেশের ক্রিকেটর অবস্থাটাই তুলে ধরলেন তার এই কিছু কথায়।
এই ব্যাপারে সৌম্য বলেন ,‘আসলে ভালো খেললে সবাই ভালো বলে। আর খারাপ খেললেই মাটিতে নামিইয়ে দেয়। এইটা শুধু বাংলাদেশেই না, সব জায়গাতেই হয়। তাই মাথায় রাখি সবসময় ভালো খেলার জন্য।’
এই ব্যাপারে সৌম্য আরো বলেন ,’‘মাঝের দিক দিয়ে আমি ফর্মে ছিলাম সা। তখন আমার অবস্থা ভয়াবহ ছিলো। ফেসবুকে আসলেই মন খারাপ হয়ে যেত। সবাই গালাগালি করতো। তখন ভাবলাম ফেসবুকেই চালাবো না। মানুষের সাথে কথাকম বলবো। খেলারদিকে বেশি মনোযোগ দিবো।’

Related Post