ইতালির ভেনিস শহরের তিন চতুর্থাংশ এখন বন্যার পানির নিচে। বন্যার পানির সঙ্গে আছে ঝড়ো হাওয়া ও ভারি বৃষ্টি। দুর্যোগপূর্ণ এ আবহাওয়ায় ইতালি জুড়ে এ পর্যন্ত ৬ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। রাস্তায় ৫ ফুটের মতো পানি যা ২০০৮ সালের ডিসেম্বরের পর সর্বোচ্চ।

বিভিন্ন শহরে গাছ-পালা ভেঙে রাস্তায় পড়ে থাকায় যানবাহন চলাচলে সমস্যা দেখা দিয়েছে। দেশটির ছয়টি অঞ্চলে রেড এলার্ট জারি করেছে রোমান সিভিল প্রোর্টেকশন। অঞ্চলগুলো লম্বারদিয়া, ভেনেতো, ফ্রিওলি ভেনেজিয়া, জুলিয়া, লিগুরিয়া, ত্রেনতিনো আলতো আদিজে এবং আব্রুচ্ছো। ইতালির অন্যতম পর্যটন কেন্দ্র ভেনিসে এ বছর উচ্চ জলাবদ্ধতা রেকর্ড সৃষ্টি করেছে। ৭৫ ভাগ পানিতে ভেসে গেছে শহরটি। বৈরী আবহাওয়ার কারণে স্কুলগুলো বন্ধের ঘোষণা দেয়া হয়েছে। পাশাপাশি সাধারণ মানুষের চলাচলে সতর্ক থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার কারণে বারি শহরের বিমানবন্দরে ফ্লাইটে সমস্যা দেখা দেয়। তাই লিগুরিয়া থেকে লম্বারদিয়া ও পুলিয়া পর্যন্ত বিভিন্ন রুটের ট্রেন চলাচল ও বিমানের ফ্লাইট বন্ধ করে দেওয়া হয়। রোমের ইউর এলাকায় একজন ফায়ার সার্ভিস উদ্ধারকারী আহত হলে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এছাড়া ভেনেতোর অবস্থা খুবই গুরুতর বিশেষ করে ওই অঞ্চলের ত্রেভিসো ও বেল্লুনো সেখানে ১৬০ হাজারের বেশি বাসিন্দা বর্তমান বিদ্যুৎহীন অবস্থায় আছেন। গভর্নর লুকা জাইয়া জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেছেন। এ ব্যাপারে সিনেট সভাপতি মারিয়া এলিসাবেতা এ অবস্থার জন্য একটি তদন্ত কমিশন গঠন করার দাবি জানান।

Related Post

Spread the love
  • 264
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    264
    Shares