নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার কাঠের পুল এলাকায় মেট্রো নিটিং অ্যান্ড ডাইং কারখানার বাথরুমে বিলকিস বেগম নামে এক নারী অজ্ঞান হয়ে পড়ে যান। এ সময় বিলকিসকে ভূতে মেরে ফেলে গুজব ছড়িয়ে কারখানা ছেড়ে পালিয়ে যান অন্যান্য কর্মচারীরা।
বুধবার সন্ধ্যায় ফতুল্লার মেট্রো নিটিং অ্যান্ড ডাইং কারখানায় এ ঘটনা ঘটে। নারী শ্রমিক বিলকিস বেগমকে ঘটনার পর নগরীর খানপুর ৩০০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।
কারখানার কর্মচারীরা জানান, বিলকিস বেগম নামে ওই নারী কর্মচারী বাথরুমে গিয়ে অজ্ঞান হয়ে পড়ে যান। এ সময় বিলকিস বেগমকে ভূতে মেরে ফেলেছে বলে গুজব ছড়িয়ে দেন অন্যান্য কর্মচারী। এ নিয়ে আতঙ্ক দেখা দেয় শ্রমিকদের মধ্যে। ভূতের ভয়ে শ্রমিকরা সবাই পালিয়ে যান। পরে ফতুল্লার শিল্প পুলিশের সদস্যরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে শ্রমিকদের শান্ত করেন। একপর্যায়ে বাথরুমের দরজা ভেঙে বিলকিস বেগমকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।
ফতুল্লার শিল্প পুলিশের পরিদর্শক মো. জাহাঙ্গীর আলম বলেন, বিলকিস নামে এক নারী শ্রমিক বাথরুমে অজ্ঞান হয়ে যান। পরবর্তীতে তাকে বাথরুমের দরজা ভেঙে বের করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। জানতে পেরেছি, প্রাথমিক চিকিৎসার পর তাকে বাড়িতে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। তাকে ভূতে মেরে ফেলেছে বলে একটা গুজব ছড়িয়ে পড়ে শ্রমিকদের মধ্যে। এ নিয়ে একটা ভীতি তৈরি হয়। আসলে ভূত না, এটা ছিল একটা গুজব।-জাগোনিউজ২৪

Related Post