১০ ডলারও নেই রোনালদিনহোর কাছে!

গত মাসে চীন, জাপান ও দক্ষিণ আফ্রিকা গিয়েছিলেন রোনালদিনহো। বিলাসবহুল জীবন যাপনও করেন ব্রাজিলে। অথচ ৩৮ বছর বয়সী এই তারকার ব্যাংক অ্যাকাউন্টে নেই ১০ ডলার! তাহলে কোন অ্যাকাউন্টের টাকা দিয়ে এতগুলো দেশ ঘুরে এলেন তিনি?
‘সুরক্ষিত জায়গায় অবৈধ স্থাপনা’ গড়ে তোলার জন্য ব্রাজিলে মামলা চলছিল রোনালদিনহোর বিপক্ষে। চার বছর ধরে চলা সেই মামলায় হেরেছেন ব্রাজিলের হয়ে ২০০২ বিশ্বকাপ জেতা রোনালদিনহো। রিও গ্রান্দে দো সুল আদালত ১.৭৫ মিলিয়ন পাউন্ড জরিমানা করেছেন তাঁকে। রোনালদিনহো সেটা দিতে অস্বীকৃতি জানানোয় জব্দ করা হয় ব্যাংক অ্যাকাউন্ট। কিন্তু মাত্র ৯ ডলার পেয়েছেন আদালত! বাংলাদেশি মুদ্রায় মাত্র ৭৫৬ টাকা। তাই নির্দেশ দেওয়া হয়েছে তাঁর পাসপোর্ট বাতিলের।

ইউরোপিয়ান ফুটবলে পিএসজি, বার্সেলোনা, এসি মিলানের মতো ক্লাবে খেলেছেন রোনালদিনহো। ২০০৫ সালে জিতেছেন ব্যালন ডি’অর। ফিফার বর্ষসেরা হয়েছেন ২০০৪ ও ২০০৫ সালে। লিওনেল মেসির তারকা হওয়ার আগে জাদু দেখিয়েছেন বার্সেলোনায়। ২০০৫-০৬ মৌসুমের চ্যাম্পিয়নস লিগ আর ২০০৪-০৫, ২০০৫-০৬ মৌসুমে বার্সার লা লিগা জেতার অন্যতম নায়ক তিনি। ব্রাজিলের হয়ে জিতেছেন ১৯৯৯ সালের কোপা আমেরিকা, ২০০২ বিশ্বকাপ ও ২০০৫ ফিফা কনফেডারেশনস কাপ।২০১৫ সালের পর ফুটবল ছাড়লেও খেলাটার সঙ্গে জড়িয়ে আছেন নানাভাবে। দেখা গেছে রাশিয়া বিশ্বকাপের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানেও। নাইকির মতো প্রতিষ্ঠান এখনো ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর করে রেখেছে রোনালদিনহোকে। নাইকির হয়েই গত মাসে প্রচারণায় অংশ নিয়েছেন চীন, জাপান ও দক্ষিণ আফ্রিকায়। নাইকি কিছুদিন আগে তাঁর নামে বানিয়েছে নতুন বুট। সেই তাঁর ব্যাংক অ্যাকাউন্টে ছয় পাউন্ডও না থাকাটা বিস্ময়ের। ১.৭৫ মিলিয়ন পাউন্ড শোধ না করায় পাসপোর্ট জব্দ হয়ে গেছে তাঁর। সঙ্গে ভাই ও এজেন্ট রবের্তো দ্য অ্যাসিসেরও। রবের্তো তাঁর অংশের জরিমানা দিয়ে ফেলেছেন। রোনালদিনহোরও না দিয়ে উপায় নেই।

পাসপোর্ট না পেলে এই মাসে জার্মানির ফ্রাংকফুর্টে অনুষ্ঠেয় ‘গেম অব চ্যাম্পিয়নস’ প্রীতি ম্যাচে অংশ নেওয়া হবে না রোনালদিনহোর। পিছিয়ে পড়া শিশুদের জন্য তহবিল সংগ্রহে ‘রোনালদিনহো ও বন্ধুরা’ একাদশের বিপক্ষে খেলার কথা ‘রেনে অ্যাদলার অল-স্টার্সের’। এদিকে কেনিয়ার সবচেয়ে বড় ক্রীড়া বেটিং প্রতিষ্ঠান ‘বেটিকা’ নতুন ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর ঘোষণা করেছে রোনালদিনহোকে। ৯ নভেম্বর এই ব্রাজিলিয়ানের আসার কথা কেনিয়ার নাইরোবিতে। এক বিবৃতিতে প্রতিষ্ঠানটি লিখেছে, ‘রোনালদিনহোকে পেয়ে উচ্ছ্বসিত আমরা। বেটিকার হয়ে প্রচারণা চালাবেন তিনি।’ কিন্তু পাসপোর্ট না পেলে কিভাবে যাবেন তিনি নাইরোবিতে? মার্কা

(Visited 10 times, 1 visits today)

Related Post

You may also like...