মানুষ চলে যায়। থেকে যায় তার কর্ম ও স্মৃতি। সেসব আঁকড়ে ধরে রাখেন চলে যাওয়া মানুষের পরিবার ও প্রিয়জনেরা। আজ ১৪ নভেম্বর ১৪ বছর হতে চললো অভিনেতা রাজীব নেই। কিন্তু এখনো তার অভিনয়কে মিস করেন এদেশের চলচ্চিত্রের দর্শক।এখনো অভিনেতা রাজীবকে নিয়ে আগ্রহের শেষ নেই। সিনেমার শক্তিশালী এই অভিনেতার পরিবারের খবর জানতে চান ভক্তরা। রাজীবের মৃত্যুর পর থেকেই সবরকম প্রচারের বাইরে তার পরিবার।রাজীবের এক আত্মীয়ের বরাতে খোঁজ নিয়ে জানা গেল, রাজধানীর উত্তরাতেই বাস করেন রাজীবের পরিবার। সেখানে নিজেদের বাসাতেই থাকেন তারা।রাজীবের স্ত্রী ইশমত আরা রাজীব।সংসার আর ধর্ম কর্মেই কেটে যায় তার দিন।

১৯৯৬ সালে এক হৃদয় বিদারক জল দুর্ঘটনায় নৌকা ডুবে মৃত্যুবরণ করেন অভিনেতা রাজীবের দুই পুত্র। এরপর রাজীব-ইশমতের দাম্পত্য আলোয় ভরিয়ে রেখেছেন এক পুত্র ও দুই কন্যা।রাজীবের বড় ছেলে দ্বীপ। বিয়ে করেছন বহুজাতিক শিল্প প্রতিষ্ঠানের এক মালিকের কন্যাকে।দ্বীপের ছোট দুই বোন। তারা হলেন রানিসা ও রাইসা। দুজনেই পড়াশোনা করছেন দেশের স্বনামধন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে।বাবার জনপ্রিয়তাকে তারা গর্ব মনে করেন। তবে সিনেমা নিয়ে তাদের কোনো আগ্রহ নেই। চলচ্চিত্রের মানুষদের সঙ্গে খুব একটা যোগাযোগ নেই তাদের। নিজেদের সরিয়ে রাখেন সবরকম আলোচনা ও প্রচার থেকে।২০০৪ সালে ক্যান্সারে আক্রান্ত মৃত্যুবরণ করেন এ দেশের চলচ্চিত্রের শক্তিমান অভিনেতা ওয়াসিমুল বারী রাজীব। উত্তরার ৪ নম্বর সেক্টরে সিটি করপোরেশনের কবরস্থানে তাকে সমাহিত করা হয়।

Related Post

Spread the love
  • 1.5K
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    1.5K
    Shares