চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার কার্পাসডাঙ্গা ভূমিহীন পাড়ায় কিশোরী মেয়েকে (১২) জোরপূর্বক ধর্ষণ করেছে লম্পট বাবা। এ ঘটনায় শিশু কন্যাটি ৩ মাসের অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েছে।পুলিশ ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে শুক্রবার (১৬ নভেম্বর) বিকালে বাবা আজাদ আলীকে (৪০) আটক করেছে।ধর্ষিতা কিশোরীটি কার্পাসডাঙ্গা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেণির ছাত্রী।ধর্ষিতার মা রাশিদা খাতুন জানান, গত ৩ মাস আগে আজাদ আলী কিশোরীকে ঘরে একা পেয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। এরপর থেকে আজাদ আলী আরও কয়েকবার ধর্ষণ করে।এতে শিশুটি ৩ মাসের অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়লে শুক্রবার সকালে ঘটনাটি কিশোরীর কাছ থেকে জানতে পারে।এ ঘটনার পর থেকে স্বামী আজাদ আলীর সাথে তার বাক-বিতণ্ডা হয়।দুপুরে ঘটনাটি দামুড়হুদা থানা পুলিশকে অবহিত করলে পুলিশ শিশুটির বাবা আজাদ আলীকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।বিকালে এসপি (দামুড়হুদা ও জীবননগর সার্কল) আবু রাসেল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।দামুড়হুদা মডেল থানার ভারপাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুকুমার বিশ্বাস ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, এ ব্যাপারে ধর্ষিতার মা রাশিদা খাতুন দামুড়হুদা থানায় একটি মামলা দায়ের করে।

Related Post

Spread the love
  • 429
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    429
    Shares