রাজধানীতে নতুন আতঙ্ক ‘সালাম পার্টি’

প্রতারকরা নতুন নতুন কৌশলে প্রতিনিয়ত ঠকিয়ে চলছে সাধারণ মানুষকে। রাজধানীতে নতুন এক চক্রের সন্ধান পেয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। যারা ভদ্র এবং মার্জিত পোশাক পরে সালাম দিয়ে নিঃস্ব করে দের ভুক্তভোগীকে। এই চক্রের নাম ‘সালাম পার্টি’। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী বলছে, সালাম পার্টির সদস্যদের দেখলে মনে হবে কোনো করপোরেট অফিসে উচ্চ পদে চাকরি করেন বা কোন কর্পোরেট ব্যবসায়ী। বলা-চলায় আধুনিকতার ছোঁয়া। রাস্তাঘাটে সামনে হাজির হয়ে অত্যন্ত বিনয়ের সঙ্গে সালাম দেবে। এতে যেকেউ হয়ে উঠবেন কৌতূহলী। আপনার এই কৌতুহল বা আগ্রহের সুযোগ নিয়েই তারা নিমিষের মধ্যে হাতিয়ে নেবে আপনার টাকা-পয়সা, মোবাইলসহ গুরুত্বপূর্ণ জিনিসপত্র।

রাজধানীতে সম্প্রতি এমন ধান্দাবাজ ‘সালাম পার্টি’ চক্রের পাঁচ সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে পল্টন থানা পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- জিতু (৪৯), মিজান (৩৫), রিপন (২৮), পিন্টু মিয়া (৩১) ও আকতার হোসেন (৪৫)। গ্রেপ্তারকৃতদের কাছ থেকে ১ লাখ টাকা উদ্ধার করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে এই প্রতারকরা চাঞ্চল্যকর তথ্য দিয়েছেন। তারা জানান, চক্রের সদস্যরা অত্যন্ত স্মার্ট হয়ে চলাফেরা করেন। প্রয়োজনের তাগিদে দামি শার্ট, প্যান্ট, জুতা এমনকি শীতকালে কোট ও টাই পরেও ধান্দায় নেমে পড়েন। এই কেতাদুরস্থ পোশাকের ভেতরেই তারা বিশেষ কায়দায় রাখেন চাকু, চাপাতিসহ ধারালো অস্ত্র।

ভদ্রলোকের বেশ নিয়ে প্রতারকরা রিকশা ভাড়া করে বিভিন্ন জায়গায় ঘুরে বেড়ান। ব্যাংক বা এটিএম বুথের পাশে তাদের আনাগোনা বেশি। টার্গেট পেলেই তারা পিছু নেন। এরমধ্যে চক্রের সবাইকে খবর দেন। একপর্যায়ে সুবিধামতো জায়গায় টার্গেটকৃত ব্যক্তির সামনে গিয়ে লম্বা সালাম দিয়ে বলেন, আপনি অমুক না? এরমধ্যে সেখানে জটলার সৃষ্টি করেন প্রতারকরা। এ সুযোগে হাল্কা ধাক্কাধাক্কি বা জোরাজুরির এক পর্যায়ে সর্বস্ব লুটে নেয়া হয়। খুব দ্রুতই সটকে পড়েন তারা। কখনো টার্গেককৃত ব্যক্তি প্রতিবাদ করলে, সিন্ডিকেটের সবাই মিলে ওই ব্যক্তিকে উত্তম-মধ্যম দেন। পুলিশ বলছে, চক্রটি সিন্ডিকেটের মাধ্যমে বিভিন্ন এলাকায় কাজ করে। এলাকাভিত্তিক চার-পাঁচজনের দল থাকে তাদের। এমন সালাম পার্টি থেকে নিরাপদ থাকতে চলাচলের সচেতনতার ওপর গুরুত্ব দিচ্ছে পুলিশ। ব্যাংক কিংবা এটিএম বুথ থেকে টাকা তুললে সাবধানে চলাচলে পরামর্শ দেয়া হয়েছে।
Source: 24livenewspaper.com

(Visited 134 times, 1 visits today)

Related Post

You may also like...