এক ব্যক্তি এক মসজিদে ঘুমন্ত ছিলো আর তার পাশে ছিলো তার চলার সাথি একটি মুদ্রার থলে।যখন তার ঘুম ভাংল সে দেখল তার থলে নাই। অতঃপর সে একজন ব্যক্তিকে তার পাশে দেখতে পেল।তার নাম ছিলো:জাফর আসসাদিক(আততাইয়ার)। নবীজি ঈদের নামাজ পরে বাড়ি ফিরছিলেন ,গাছের নিচে এক বাচ্চা কাঁদছিলেন (ইসলামিক গল্প) সে ব্যক্তি সেখানে নামাজ পড়তেছিল।আর সেই ব্যক্তি যার থলে হারিয়ে গেছে সে জাফরকে দোষি সাব্যস্ত করল।এবং তাকে বলল কে আমার থলে চুরি করেছে?এখানে তুমি ছাড়া আর কেউ নেই।জাফর বলল তোমার থলেতে কত মুদ্রা ছিলো?সে বলল 100 মুদ্রা ছিলো।তারপর জাফর তার বাড়িতে গেল এবং 100 মুদ্রা আনল।তারপর সেই লোকটা তার সাথিদের চলে গেল।তার সাথিরা তাকে বলল:তোমার থলে আমাদের নিকট।তুমি এই থলে কোথা থেকে পেলে?তারপর সেই লোকটি আবার সেই শহরে গেলো।আর লোকদের জিগাসা করল ঐ ব্যক্তি কে যে আমাকে মুদ্রা দিয়েছিল?লোকেরা বলল সে রাসূলের চাচা। মানুষের খারাপ আচরণে কষ্ট পাবেন কেন? তারপর সেই লোকটি জাফরের বাসায় গেলেন,এবং তার থেকে তার ভূলের কারণে মাফ চাইলেন।আর তার মুদ্রা তাকে ফেরত দিলেন।কিন্তু জাফর তা ফেরত না নিয়ে তাকে হাদিয়া (উপহার) দিলেন।আর বললেন আমি যা ঘর থেকে বের করি তা আর ঘরে প্রবেশ করাইনা।(কাউকে কোন জিনস দিলে আর ফেরত নেইনা)। বন্ধুরা আমাদের আখলাক এমন হওয়া উচিৎ। এক ব্যক্তি রাসূলের চাচাকে চোর বলেছিলো তারপর যা হয়েছিল(ইসলামিক গল্প) তাই আমরা সবাই আল্লাহর কাছে দুআ করব। পবিত্র কোরআনে কারিমে আল্লহ বলেন, “মুমিনগণ, তোমরা অনেক ধারণা থেকে বেঁচে থাক। নিশ্চয় কতক ধারণা গোনাহ। এবং গোপনীয় বিষয় সন্ধান করো না। তোমাদের কেউ যেন কারও পশ্চাতে নিন্দা না করে। কয়েকটি সুরার ফজিলত ও আমল !! তোমাদের কেউ কি তারা মৃত ভ্রাতার মাংস ভক্ষণ করা পছন্দ করবে? বস্তূত: তোমরা তো একে ঘৃণাই কর। আল্লাহকে ভয় কর। নিশ্চয় আল্লাহ্ তওবা কবুলকারী, পরম দয়ালু”–সুরা হুজরাত, আয়াত ১২।

Related Post